West Bengal

লকডাউন অমান্য করলেই এবার কড়া পদক্ষেপ কলকাতা পুলিশের।

নিয়ম ভাঙ্গায় একদিনে গ্রেপ্তার প্রায় ৮০০ জন।

পল্লবী : জাতির উদ্দেশ্যে ভাষণ প্রধান মন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী যথারীতি অনুরোধ করে সকলের কাছে বাড়ি থাকার জন্য। কিন্তু শহরের বিভিন্ন জায়াগায় এখনো দেখা যাচ্ছে ভিন্ন চিত্র। কলকাতার সমস্ত বড়ো বড়ো বাজার গুলি দেখলে, প্রত্যেকটি চা-এর দোকান গুলি দখলে তো মনেই হবে যেন এটা রোজের কলকাতা। তাহলে প্রশ্ন উঠছে সতর্কতা কোথায় ? তবে মানুষকি এখনো সচেতন নন ? তবে এবার এই বিষয় নিয়ে কড়া পদক্ষেপ নিচ্ছে কলকাতা পুলিশ। নিয়ম অমান্য করে রাস্তায় ঘুরে বেড়ালে নেওয়া হবে কঠোর ব্যবস্থা। রাস্তায় ক্যারম খেলা কিংবা আড্ডা দেওয়া কোনোটাই সহ্য করা হবে না, স্পষ্ট বার্তা কলকাতা পুলিশের।

আবার অনেকে জরুরি প্রয়োজনে বেড়িয়ে যাচ্ছেন বাড়ির বাইরে, মানছেন না ‘সোশ্যাল ডিস্ট্যানসিং’। এই নিয়ে আরও তত্‍পর পুলিশ। কলকাতা পুলিশ তাদের অফিসিয়াল টুইটার হ্যান্ডেলে জানিয়েছে, লকডাউন ভঙ্গকারীদের বিরুদ্ধে ২৪৬ টি এফআইআর করা হয়। শুধু তাই নয়। একদিনে গ্রেপ্তার করা হয় প্রায় ৮০০ জনকে। প্রায় ১৪৮ টি গাড়ি বাজেয়াপ্ত করা হয়। কলকাতার সিপি জানান,”আমরা বারবার অনুরোধ করছি খুব গুরুত্বপূর্ণ কাজ ছাড়া বাড়ির বাইরে বেরোবেন না। এরকম চলতে থালে আমাদের আটক করতে হবে।

ভারতীয় দণ্ডবিধির ১৮৮ ধারা জামিনযোগ্য তবে অপরাধ প্রমাণ হলে অপরাধের গুরুত্ত্ব অনুযায়ী এক থেকে ছ’ মাস পর্যন্ত কারাদণ্ড বা জরিমানা হতে পারে। পুলিশ সূত্রে আরও জানা গেছে প্রচুর লোকজন চা খেতে, পাড়ার রকে আড্ডা দিতে বেরোচ্ছে। তাদের সতর্ক করা হয়। এরপর তা অমান্য করলে মামলা রুজু করা হয়। তবে যারা গুরুত্বপূর্ণ কাজে বেরোচ্ছেন তাদের যাতে হেনস্থা না করা হয় তাও দেখা হবে।

এই সব কিছুই করা শুধুমাত্র যাতে প্রত্যেকজন সাধারণ মানুষ সুস্থ থাকেন এবং ভালো থাকেন। সাধারণ নাগরিক বিষয়টি গুরুত্ত্ব দিয়ে না ভাবলে বিপদ বাড়বে। তাই তাদের উদ্দেশে মুখ্যমন্ত্রী থেকে পুলিশ সকলে সমান বার্তা দিচ্ছে। অকারণ যাতায়াত রোধ করার সম্পূর্ণ চেষ্টা চালাচ্ছে। প্রসঙ্গত, যদি নিজের ভালো নিজে না বোঝেন এখনো তবে করোনা মোকাবিলা তো দূরের কথা মরণ ছাড়া আর কোনো পথ বেঁচে থাকবেনা।তাই ‘স্টে হোম, সেভ লাইফ’।

Show More

Related Articles

Back to top button
%d bloggers like this: