Health

শুরু হয়েছে লকডাউন ৩.০,এর মধ্যেই বেড়েই চলেছে আক্রান্তের সংখ্যা

দেশে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ৪২ হাজার ৬৭০ জন।

প্রেরনা দত্তঃ করোনা মোকাবিলায় লকডাউন একমাত্র পথ। আর তাই আজ থেকে দেশজুড়ে চালু হয়েছে লকডাউন ৩.০। তার আগে একদিনে গোটা দেশে রেকর্ড সংক্রমিত ২ হাজার ৪৮৭ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে করোনায় রেকর্ড মৃত্যু হয়েছে ৮৩ জনের! বাংলাতে মৃতের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ৫০।

ভারতের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় শুক্রবার জানিয়েছিল যে, সোমবার থেকে তৃতীয় দফার লকডাউন শুরু হবে পুরো দেশে। এই দফার লকডাউনে বেশ ক্ষেত্রে শৈথিল্য বাড়ানো হয়েছে। তবে শুক্রবার থেকে রোববার পর্যন্ত সারাদেশে ৪৮ ঘণ্টায় নতুন করে সংক্রমিত হয়েছে ৪ হাজার ৮৯৮ জন।

জোন ভিত্তিক বেশ কিছু এলাকায় ছাড় রয়েছে। গ্রিন জোনে সামান্য কিছু বাধা নিষেধ ছাড়া চালু অন্য সব পরিষেবা। অরেঞ্জ জোনের ক্ষেত্রেও একাধিক সুযোগ সুবিধা রয়েছে। তবে রেড জোনে আছে কড়াকড়ি।গ্রিন জোনে বাস চালুর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। তবে ৫০ শতাংশ যাত্রী নিতে পারবে বাসগুলি। অরেঞ্জ জোনে আবার ট্যাক্সি ও ক্যাব চলাচলে ছাড় রয়েছে। রেড জোনে প্রাইভেট কার চলতে পারে

বিধিনিষেধের শর্ত মেনে।অন্যদিকে ইতিমধ্যেই খুলেছে বেশ কিছু আইটি অফিস ও সরকারি দপ্তর। ফলে লকডাউন ৩ থেকে অফিস যেতে হবে কিনা, তা বুঝতে পারছেন না অনেকেই। সরকারি নির্দেশে বলা হয়েছে, বেসরকারি অফিসের ক্ষেত্রে ৩৩ শতাংশ কর্মী উপস্থিত থাকতে পারবেন।

এখনও পর্যন্ত মহারাষ্ট্রই সবচেয়ে বেশি করোনা সংক্রমিত রাজ্য রয়েছে। সারা রাজ্যে মোট সংক্রমিত ১২ হাজার ৯৭৪ জন। নতুন করে আক্রান্ত হয়েছে ৭৯০ জন। করোনায় রাজ্যে মোট মৃতের সংখ্যা ৫৪৮ জন।
এদিকে করোনা সংক্রমণে দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে গুজরাট ৷ সেখানে এখনও পর্যন্ত ৫ হাজার ৪২৮ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছে৷ তিনে রয়েছে দিল্লি৷ সেখানে আক্রান্তের সংখ্যা ৪ হাজার ৫৪৯ জন।আজ থেকে লকডাউন ৩ শুরু হলেও, শুক্রবার থেকেই এই নিয়মগুলি লাগু হয়েছে। জোনভিত্তিক নিয়ম বরাদ্দ করা হয়েছে।

Show More

Related Articles

Back to top button
%d bloggers like this: