West Bengal

শুরু হয় বচসা, পরিস্থিতি বেসামাল হয়ে বাবার হাতেই খুন হয় নেশাগ্রস্ত ছেলের

"কেউ কি জন্ম দিয়ে নিজের ছেলেকে মারতে চায় !", জানায় নিহতের দিদি

পল্লবী : মা বাবা যেমন একটা প্রাণের জন্ম দেন তেমন সেই প্রান্তিকে সুন্দর ভাবে যত্ন করে গড়ে তুলতেও চান। কিন্তু এমন কিভাবে হলো ! তিনি শুধুমাত্র ছেলেকে শুধুমাত্র শিক্ষা দিতে চেয়েছিলেন। রোজের একই অশান্তি হতো ঘরে “টাকা দাও টাকা দাও” কিন্তু আয়ের পথ বন্ধ টাকা আসবে কোথা থেকে। আর টাকা না পেলেই ঘরে সকলের ওপর মারধর ছেলের। মদের নেশা দিনে দিনে ভারসাম্যহীন করে তুলছিলো ছেলে কে। শুক্রবার বিকেলে যার সমাপ্তি ঘটে বাবার হাতেই নিজের অজান্তেই। কান্দি পুরসভার হোটেল পাড়া ঘটনা। ছেলেকে পিটিয়ে মারার অভিযোগ ওঠে বাবার বিরুদ্ধে।

এই নিহতের নাম ইমরান শেখ, অভিযুক্ত ইমরানের বাবা আল্লারাখা শেখ পলাতক। পুলিশ দেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠিয়েছে। আল্লারাখার স্ত্রী মুন্নিহার বিবিকে আটক করেছে পুলিশ। জানা গিয়েছে, শুক্রবার বিকেলে নেশাগ্রস্ত অবস্থায় বাড়ি ফেরে ইমরান। শুরু হয় বচসা। তারপরই তার বাবা লাঠি দিয়ে মারলে ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় তার। ইমরানের দিদি শারীরিক ভাবে পঙ্গু।

তিনি সংবাদমাধ্যমের সামনে কান্নায় ভেঙে পড়ে বলেন, ‘রোজ নেশা করার জন্য টাকা চাইত। না দিলেই অত্যাচার করত। আমি পঙ্গু। আমাকেও বাদ দিত না।’ তিনি স্বীকার করে নেন তাঁর বাবাই ভাইকে পিটিয়ে মেরেছে। তিনি বলেন, ‘কেউ কি জন্ম দিয়ে নিজের ছেলেকে মারতে চায়! কিন্তু দিনের পর দিন অত্যাচার সহ্য করতে না পেরে শেষ পর্যন্ত এই ঘটনা!’ ইমরানের দিদি আরও বলেন, ‘এর আগেও থানায় গিয়ে ওর নামে অভিযোগ জানানো হয়েছিল। কিন্তু পুলিশ কোনও ব্যবস্থা নেয়নি।’

এভাবেই সমাজের যুব সম্প্রদায় দিনে দিনে ভারসাম্যহীন হয় পড়ছে। এই ঘটনা শুধু এ পরিবারের নয়, এমন অশান্তি আজ প্রতিটি ঘরে ঘরে হচ্ছে যা লোকচক্ষুর আড়ালে রয়ে যাচ্ছে। এমন ভাবে চলতে থাকলে ভবিষৎ প্রজন্ম নিয়ে অনিশ্চিয়তা ভাবাবেই ভাবাবে !

Show More

Related Articles

Back to top button
%d bloggers like this: