Nation

শেষ অব্দি আইনই আস্থা

প্রধানমন্ত্রীর হেলকপ্টার তল্লাশি চালানোর শাস্তি ভোগ করছেন আইএএস অফিসার

প্রধানমন্ত্রীর হেলকপ্টার তল্লাশি চালিয়ে  নির্বাচন কমিশনের রোষের মুখে পড়েছিলেন আইএএস অফিসার মহম্মদ মহসিন। এসপিজি (স্পেশাল প্রোটেকশন গ্রুপ)-এর নিয়মবহির্ভূত কাজ করার অভিযোগে বরখাস্ত হতে হয় মহসিনকে। যদিও পরে সেই সিদ্ধান্ত বাতিল করে তাঁর বিরুদ্ধে শুধুমাত্র শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে বলে জানায় কমিশন। কমিশনের সিদ্ধান্তের চ্যালেঞ্জ জানিয়ে সেন্ট্রাল অ্যাডমিনিস্ট্রিটিভ ট্রাইব্যুনাল-এ দ্বারস্থ হন ১৯৯৬ ব্যাচের কর্নাটকের এই অফিসার।মহম্মদ মহসিন বলেন, “আমি শুধুমাত্র কর্তব্য পালন করেছি। চাপে পড়েই আমাকে বরখাস্ত করা হয়েছে। এখনও পর্যন্ত উপযুক্ত কারণ দেখানো হয়নি। অন্ধকারে নিজের সঙ্গেই লড়ছি আমি।”

মহসিন আরো  জানিয়েছেন, নির্বাচন কমিশনের বিধি অনুযায়ী ভিডিয়োগ্রাফি চেয়েছিলেন তিনি। তাঁর অভিযোগ, যে কারণে আমাকে শাস্তি দেওয়া হল, একই অভিযোগে অভিযুক্ত অন্য এক ব্যক্তির বিরুদ্ধে কোনও পদক্ষেপ করা হয়নি। কমিশনের বরখাস্ত সিদ্ধান্ত বেআইনি বলে দাবি করেন মহসিন। তিনি আরও প্রশ্ন তোলেন, ভিডিয়োগ্রাফি চাওয়ার সময় কেন বাধা দেয়নি এসপিজি? কেন তাদের নিয়ম বিষয়ে জানানো হয়নি?  মহসিন বলেন, “২২ বছর ধরে চাকরি করছি। কোনও রাজনৈতিক দলের সঙ্গে যুক্ত নই। আইনের পথেই লড়াই চালিয়ে যাব।”

Show More

Related Articles

Back to top button
Close
Close
%d bloggers like this: