Sports Opinion

স্টোকসের অবিশ্বাস্য ক্যাচ !

প্রায় সাড়ে ৭ ফুট লাফিয়ে বিশ্বসেরা ক্যাচ কি এটাই ?

শুরু হয়ে গেলো ‘ক্রিকেট বিশ্বকাপ ২০১৯’। গতকালের ইংল্যান্ড বনাম সাউথ আফ্রিকার ম্যাচ দিয়ে শুরু হলো ‘ক্রিকেট বিশ্বকাপ ২০১৯’। প্রথম ম্যাচেই জমজমাট ক্রিকেট বিশ্বকাপ। ১০৪ রানে দক্ষিণ আফ্রিকা হেরে গেলেও দর্শকরা এই ম্যাচটি মনে রাখবে ইংল্যান্ডের অলরাউন্ডার বেন স্টোকস (এই লিঙ্ক-এ ক্লিক করুন আর অবিশ্বাস্য ক্যাচটি দেখুন )-এর অবিশ্বাস্য ক্যাচের জন্য। অনেক বিশেষজ্ঞই মনে করছেন ক্রিকেট বিশ্বকাপে সেরা ক্যাচের তালিকায় অনায়াসেই জায়গা করে নেবে বেন স্টোকস -এর অবিশ্বাস্য ক্যাচটি।

ইংল্যান্ডের প্রথম ইনিংসে করা ৩১১ রান তাড়া করতে নেমে ম্যাচের ৩৪.১ ওভারে আদিল রশিদের বলে দক্ষিণ আফ্রিকার আন্দাইল ফেহলুকওয়েও সজোরে একটি স্লগ সুইপ মারেন মিড উইকেটের দিকে। আর ঠিক সেই সময়েই ঘটে অবিশ্বাস্য কান্ড অর্থাৎ বল আর বাউন্ডারির মাঝে চলে আসে বেন স্টোকসের ডান হাত। বেন স্টোকস ছো মেরে ক্যাচ নিয়ে ফেললেন। শরীরটাকে শূন্যে ছুড়ে ডান হাত উপরের দিকে বাড়িয়ে ক্যাচটা নিলেন। অ্যাক্রোবেটিক স্টাইলে। মিড উইকেটে লাফিয়ে পেছনের দিকে ভল্ট মেরে ২.২ মিটার (প্রায় ৭ ফুট তিন ইঞ্চি) উপর থেকে ডান হাতে ছোঁ মেরে বলটি নিজের তালুবন্দি করে নেন বেন স্টোকস। খেলার শেষে স্টোকসের সেই দুরন্ত ক্যাচ নিয়ে বিভিন্ন সোশ্যাল মিডিয়ায় শুরু হয়েছে প্রশংসার ঝড়। তার পর থেকে তর্ক উঠে গেল, এটাই ক্রিকেট ইতিহাসের সর্বকালের সেরা ক্যাচ কিনা! এমন একটা ক্যাচ নিয়ে ফেলেছেন, তা অবশ্য বিশ্বাস করতে পারছিলেন না স্টোকস নিজেও।

ইংল্যান্ডের প্রাক্তন ও বর্তমান ক্রিকেটাররা স্টোকসের এমন ক্যাচ দেখে স্তম্ভিত। স্পিনার গ্রেম সোয়ান যেমন বললেন, যা দেখলাম কোনওদিন ভুলব না। আমার চোখে এটা অবিশ্বাস্য। অসাধারণ ক্যাচ বললেও কম বলা হবে। ধারাভাষ্যকাররা বলছিলেন, স্টোকসের টাইমিং ছিল অসাধারণ। আর ওরকম টাইমিং মেনে শরীর ছোড়ার জন্য ফিটনেসের চূড়ান্ত পর্যায় থাকতে হয়। ইংল্যান্ডের পেসার স্টুয়ার্ট ব্রড বিস্ফারিত চোখে দু’হাত দিয়ে নিজের মুখ ঢাকার ছবি পোস্ট করেছেন টুইটারে। সঙ্গে লিখেছন, ‘লাউঞ্জে দাঁড়িয়ে ক্যাচটা দেখলাম। তার পর এটাই আমার প্রতিক্রিয়া।’ ক্যারিবিয়ান কিংবদন্তি ইয়ান বিশপ টুইটে লিখেছেন, ‘সর্বকালের অন্যতম সেরা ক্যাচ ধরতে দেখলাম বেন স্টোকসকে। ও একজন দুর্দান্ত অ্যাথলিট।’

দক্ষিণ আফ্রিকার প্রাক্তন তারকা হার্শেল গিবসের প্রতিক্রিয়া, ‘দুর্দান্ত ক্যাচ যাকে বলে এটা তাই।’তবে এ দিন শুধু ফিল্ডিং নয় ব্যাট আর বল হাতেও অল রাউন্ড পারফর্ম করেন তিনি। স্টোকস ব্যাট হাতে করেন ৭৯ বলে ৮৯ রান। যা এ দিন ইংল্যান্ডের হয়ে সর্বাধিক ব্যক্তিগত রান। আবার বল হাতে তুলে নেন ২টি উইকেট। এ ছাড়াও ফিল্ডিং করতে নেমে মোট ২টি ক্যাচ ছাড়াও করেন ১টি রান আউট। ম্যাচের সেরাও হন তিনি। তারপর এমন অসাধারণ একটি ক্যাচ। ম্যাচ শেষে স্টোকস বললেন, ‘‘আমি বাউন্ডারি লাইন থেকে কিছুটা এগিয়ে দাঁড়য়েছিলাম। তাই বলটা যখন আমার দিকে আসছিল তখন সেকেন্ডের ভগ্নাংশে একটু চিন্তিত হয়ে পড়ি। কিন্তু ইংল্যান্ড দলে আমার একটা ডাক নাম রয়েছে ‘দ্য ক্ল’। নামটার সঙ্গে সুবিচার করতে পেরেছি।’’

সাউথ আফ্রিকাকে হারিয়ে এইবারের বিশ্বকাপের সফর শুরু করলো ইংল্যান্ড। তবে নিজেদের গড়ে ইংল্যান্ড বিশ্বকাপ ছিনিয়ে নিতে পারবে কিনা, তা সময় বলে দেবে।

Show More

Related Articles

Back to top button
%d bloggers like this: