Sports Opinion

হেরোইন বহন করা মাদুশঙ্কাকে সাসপেন্ড করল শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট বোর্ড

ডানহাতি এ পেসারকে শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট আজ সব ধরনের ক্রিকেট থেকে নিষিদ্ধ করেছে।

প্রেরনা দত্তঃ শেহান মাদুশঙ্কার ঝামেলা বেড়েই চলছে। হেরোইন বহন করা ও লকডাউন ভেঙে রাস্তায় বের হওয়ার অপরাধে গতকাল পুলিশ তাঁকে দুই সপ্তাহের রিমান্ডে নেয়। এবার মাদুশঙ্কাকে সব ধরনের ক্রিকেট থেকে বহিষ্কারই করেছে শ্রীলঙ্কান ক্রিকেট বোর্ড (এসএলসি)।

মাদক রাখা ও লকডাউন ভাঙার অপরাধে রোববার শ্রীলঙ্কার পানালা শহর থেকে মাদুশঙ্কাকে আটক করে পুলিশ।ডানহাতি এ পেসারকে শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট আজ সব ধরনের ক্রিকেট থেকে নিষিদ্ধ করেছে। মঙ্গলবার শ্রীলঙ্কা ক্রিকেটের সম্পাদক মোহন ডি সিলভা বলেছেন,‘আমরা তাকে তাৎক্ষণিক সবধরণের ক্রিকেট থেকে নিষিদ্ধ করছি। ক্রিকেটীয় কোনও কর্মকান্ডে সে অংশগ্রহণ করতে পারবে না।’

রোববার রাতে শ্রীলঙ্কান পুলিশ মাদুশঙ্কাকে গ্রেপ্তার করেছে। সঙ্গে হেরোইন বহনের দায়ে তাকে পুলিশ রিমান্ডে নেওয়া হয়েছে। মাদুশঙ্কার বিরুদ্ধে দুটি অপরাধ আনা হয়েছে। প্রথমত, বিনা কারণে লকডাউন ভেঙেছেন। দ্বিতীয়ত, হেরোইন বহন। দুই অপরাধে স্থানীয় ম্যাজিস্ট্রেট তাঁকে দুই সপ্তাহের পুলিশ রিমান্ডে পাঠিয়েছেন।

২০১৮ সালে ওয়ান-ডে অভিষেকেই হ্যাটট্রিকধারী পেসারকে ক্রিকেটের সমস্ত ফর্ম্যাট থেকেই সাসপেন্ড করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট বোর্ড। উল্লেখ্য, করোনার জেরে দেশজুড়ে চলা কার্ফু অমান্য করে গাড়ি নিয়ে বাইরে বেরনোর অপরাধে রবিবার মাদুশঙ্কাকে গ্রেফতার করে পুলিশ। এরপর তাঁর কাছ থেকে দু’ গ্রাম হেরোইন উদ্ধার করা হয়। গাড়িতে মাদুশঙ্কার আর এক সঙ্গী ছিল বলে জানা গিয়েছে।

২০১৮ জানুয়ারিতে বাংলাদেশের বিরুদ্ধে অভিষেক ওয়ান-ডে ম্যাচে হ্যাটট্রিক করে চমকে দিয়েছিলেন। যদিও এরপর আর জাতীয় দলের জার্সি গায়ে ওয়ান-ডে ম্যাচে অংশ নেওয়া হয়নি মাদুশঙ্কার। তবে পরবর্তীতে বাংলাদেশের বিরুদ্ধেই দু’টি আন্তর্জাতিক টি২০ খেলেছেন তিনি। দারুণ শুরুর পরও খুব বেশি এগোতে পারেননি। বাংলাদেশ সফরের পর আর শ্রীলঙ্কা দলে সুযোগ হয়নি তাঁর। আর এখন তো পথই হারিয়ে ফেললেন।

Show More

Related Articles

Back to top button
%d bloggers like this: