Nation

১ জুন থেকে প্রতিদিন ২০০টি নন-এসি ট্রেন চালাবে রেল , ঘোষণা পীযূষ গোয়েলের

শীঘ্রই শুরু অনলাইন বুকিং।...

প্রেরনা দত্তঃ ভারতেও লকডাউন দু’মাস ছুঁইছুঁই। তা সত্ত্বেও করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়া রোখা যাচ্ছে না। আক্রান্তের সংখ্যা এক লক্ষ ছাড়িয়ে গিয়েছে। মৃত্যু ৩১৬৩। বেশ কিছু ছাড়ের মধ্যে দিয়েই চতুর্থ দফায় লকডাউন চলছে। কিন্তু হঠাৎ লকডাউন ঘোষণা করায় রাতারাতি বন্ধ হয় ট্রেন, বাস, অটো থেকে শুরু করে বিমান পরিষেবাও। এর ফলে দেশের বিভিন্ন প্রান্তে আটকে পড়েন অনেকেই। পরিযায়ী শ্রমিকরা পড়েন সব থেকে বেশি অসুবিধায়। এছাড়াও বিভিন্ন রাজ্যে অন্য আরও কাজে গিয়েও আটকে রয়েছেন অনেকেই।

তাই চতুর্থ দফার লকডাউন শেষ হলেই, সামনের জুনের পয়লা থেকে ধীরে ধীরে ট্রেন চলাচল শুরু হয়ে যাবে। রেলমন্ত্রী পীষূষ গোয়েল মঙ্গলবার জানিয়েছেন, ১ জুন থেকে অবাতানুকূল প্যাসেঞ্জার ট্রেন চালাবে রেল। আপাতত, ২০০টি স্পেশ্যাল প্যাসেঞ্জার ট্রেন চালানো হবে।

পীষূষ বলেন, ট্রেনের টিকিটের জন্য যাত্রীরা রেল স্টেশনে ভিড় করবেন না। কাউন্টার থেকে টিকিট কাটা যাবে না। অনলাইনে আগে থেকে টিকিট বুকিং করে, ট্রেনে উঠুন।

শ্রমিকদের নিজের রাজ্যে ফেরানোর জন্য শ্রমিক স্পেশ্যাল চালু হয়েছে। একে ব্যবস্থা চলছে তাঁদের ফিরিয়ে দেওয়ার। নিয়মিত ট্রেন চলাচল ফের শুরু হওয়া অবধি শ্রমিক স্পেশালে পরিযায়ী শ্রমিকদের বাড়ি পৌঁছে দেওয়ার কাজ চলতে থাকবে। এই শ্রমিক স্পশালের পাশাপাশি গত ১২ মে থেকে যাত্রী-চাহিদা অনুযায়ী ১৫টি বিশেষ রাজধানী এক্সপ্রেস ট্রেন চালানো শুরু হয়েছিল, সেগুলিও চলবে।

যাত্রীদের সুবিধার জন্য দিন কয়েকের মধ্যেই ওই ২০০ স্পেশ্যাল নন-এসি ট্রেনের সময়সারণি দিয়ে দেবে রেল। কোভিড-১৯ সংক্রমণের কারণে আপাতত, বাতানুকূল ট্রেন চালুর সম্ভাবনা নেই বলে বিশেষ সূত্রে খবর।

কোভিড-১৯ মহামারি রুখতে কেন্দ্রীয় সরকারের প্রচেষ্টার অংশ হিসাবে গত ২৪ মার্চ মধ্যরাত থেকে রেল তার কার্যক্রম স্থগিত করে দিয়েছিল। থেমে গিয়েছিল ১৩,৫০০টিরও বেশি ট্রেনের চাকা।

Show More

Related Articles

Back to top button
%d bloggers like this: