Nation

৩ বছরের জন্য সেনায় নিয়োগের সুযোগ থাকবে পুরুষ ও মহিলাদের, ‘ট্যুর অফ ডিউটি’ প্রকল্পের ভাবনা সেনার

এর আওতায় ইচ্ছুক সাধারণ নাগরিকরা তিন বছরের জন্য ১৩ লক্ষ শক্তিশালী সেনায় যোগ দিতে পারেন।

প্রেরনা দত্তঃ যুবসমাজকে ৩ বছরের জন্য সেনায় কাজ করার প্রস্তাব দেওয়া হবে৷ তারই প্রস্তুতি শুরু করেছে ভারতীয় সেনা৷ এর জন্য ‘ট্যুর অব ডিউটি’র পরিকল্পনা করা হয়েছে৷ সাধারণ নাগরিকদের স্বল্প সময়ের জন্য সামরিক জীবনের স্বাদ দিতে অভিনব পরিকল্পনা ভারতীয় সেনার। এই পরিকল্পনা অনুযায়ী, ট্যুর অফ ডিউটি বা ‘থ্রি ইয়ার্স শর্ট সার্ভিস স্কিম’-এর আওতায় ইচ্ছুক সাধারণ নাগরিকরা তিন বছরের জন্য ১৩ লক্ষ শক্তিশালী সেনাবাহিনীতে যোগ দিতে পারেন।

সূত্রের খবর, সাধারণ নাগরিকদের জাতির সেবার সুযোগের জন্য তিন বছরের দায়িত্ব পালনের অনুমতি দেওয়া হবে এই প্রস্তাবটির বাস্তবায়ন হলে। একইসাথে দেশের যুব সমাজকে আকৃষ্ট করতে শর্ট সার্ভিস কমিশনের অধীনেই এই চাকরি দেওয়া হবে বলে জানা যাচ্ছে। শর্ট সার্ভিস কমিশনের অধীনে কমপক্ষে একজন ব্যক্তি ১০ বছর পর্যন্ত চাকরি করতে পারেন বলেও জানা যাচ্ছে।

যদি অনুমোদন মেলে, তাহলে ভারতবর্ষের যে কোনও নাগরিক স্বেচ্ছায় এই তিন বছর সেনায় যোগ দিতে পারেন। তবে, যোগ দেওয়ার যোগ্যতার মাপকাঠিতে কোনও প্রকার পরিবরর্তন করা হবে না বলেও জানানো হয়েছে প্রস্তাবে। সেনা মুখপাত্র কর্নেল আমন আনন্দ জানিয়েছেন, প্রাথমিকভাবে অফিসার পদে ১০০ জন ও জওয়ান পদে এক হাজারকে নিয়ে পাইলট প্রজেক্ট শুরু করা হবে।

নিয়োগের পর গোটা ১বছর চলবে ট্রেনিং৷ প্রথম দফায় ‘ট্যুর অব ডিউটি’তে ১০০জন অফিসার ও ১ হাজার জন জওয়ান নিয়োগের কথা বলা হয়েছে ৷ অন্যান্য সেনাকর্মীর মতই সুযোগ সুবিধা পাবেন এই বিশেষ ব্যবস্থায় সেনায় যোগ দেওয়া অফিসার ও জওয়ানরা৷ যুদ্ধে প্রাণ গেলে তাঁদের পরিবার পাবে ফ্যামিলি পেনসনও৷ তবে এই নতুন মডেলের ফলে বেতন ও পেনশনের ক্ষেত্রে অনেকটা ভার লাঘব হবে সেনার, এমনই মনে করা হচ্ছে৷

সেনার এক কর্তা জানান, যদি এই প্রজেক্টকে সবুজ সঙ্কেত দেওয়া হয়, তাহলে অনেকেই উপকৃত হবেন। বিশেষ করে, এমন অনেকে রয়েছেন, যাঁরা সেনাতে পূর্ণ সময়ের জন্য যোগ দিতে চান না, তাঁরা এই স্বল্পসময়ের যোগদানের সুবিধার সুযোগ নিতে পারবেন।

মূলত বর্তমানে সেনা কর্মীর ঘাটতি মেটাতেই এই উদ্যোগ বলে জানা গিয়েছে৷ গত কয়েক বছর ধরেই কর্মী সংখ্যা অনেকটা কমেছে ভারতীয় সেনায়৷ সেক্ষেত্রে ৩ বছরের এই সাময়িক চাকরির বিষয়টিকে গুরুত্ব দেওয়া হচ্ছে৷ ইতিমধ্যেই আরও একটি প্রস্তবনা রয়েছে, যাতে বলা হয়েছে যে ৩৮ থেকে বাড়িয়ে জওয়ানদের অবসরের বয়স ৫৮ করে দেওয়ার কথা৷

Show More

Related Articles

Back to top button
%d bloggers like this: