Nation

৬৪টি বিমানে আটকে পড়া ১৪ হাজারের বেশি ভারতীয়দের ফেরানো হচ্ছে প্রথম দফায়

কর্মসূত্রে এই মুহূর্তে যত ভারতীয় বিদেশে রয়েছেন, তার মধ্যে ৭০ শতাংশই রয়েছেন সংযুক্ত আমিরশাহি, সৌদি আরব, কুয়েত, ওমান, কাতার এবং বাহরিনে।

প্রেরনা দত্তঃ সময় যতই এগোচ্ছে ততই দাপট বাড়াচ্ছে মারণ ভাইরাস। বিশ্বে ৩৫ লক্ষেরও বেশি মানুষ আক্রান্ত। মৃতের সংখ্যা ২ লক্ষ ৫০ হাজার ছাড়িয়েছে। ভারতের সংখ্যাও বাড়াচ্ছে উদ্বেগ। আক্রান্ত ৪৬,৭১১। মৃত্যু হয়েছে ১৫৮৩ জনের। এই পরিস্থিতিতে করোনা সংক্রমণকে জব্দ করতে ১৭ মে পর্যন্ত লকডাউনের সময়সীমা বাড়ানো হয়েছে। বিদেশ থেকে ভারতীয়দের ফেরাতে তৎপরতা তুঙ্গে। প্রথম সপ্তাহে ৬৪ টি বিমান ছাড়া হবে। সৌদি আরব, কুয়েত, মালদ্বীপ, সিঙ্গাপুর, আমেরিকা-সহ ১২ দেশে পাঠানো হবে বিমান।

ইতিমধ্যেই সংশ্লিষ্ট দেশগুলির দূতাবাস এবং হাইকমিশন আটকে থাকা এবং দেশে ফিরতে ইচ্ছুক ভারতীয়দের তালিকা তৈরি করতে শুরু করেছে।একই সঙ্গে, ১৭ মে-তে তৃতীয় লকডাউনের মেয়াদ কাটার পরে দেশের কিছু কিছু অংশে বিমান পরিবহণ চালু করার কথা ভাবা শুরু করল কেন্দ্র। তবে বিমান পরিবহণ চালু হলে তা শুরু হবে শুধুমাত্র গ্রিন জোন এলাকার মধ্যে। এই প্রস্তাব ইতিমধ্যেই প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির দফতরে পাঠানো হয়েছে। প্রধানমন্ত্রীর শিলমোহর পাওয়ার পরেই তা চালু করার কাজ শুরু হবে।

দেশে ফিরতে চাইলেই হবে না। ফ্লাইটে ওঠার আগে সব যাত্রীদের মেডিক্যাল পরীক্ষা করে দেখে নেওয়া হবে কোভিডের কোনও লক্ষণ আছে কি না। অসামরিক বিমান পরিবহণ মন্ত্রকের এক অফিসার বলেন, “বিমানে আসতে হবে মেডিক্যাল প্রোটোকল মান্য করেই। তার পরে এ দেশে এসে আবার সংশ্লিষ্ট ব্যক্তির শারীরিক পরীক্ষা করা হবে। করোনার কোনও লক্ষণ ধরা না পড়লেও ওই যাত্রীকে ১৪ দিনের সরকারি বা বেসরকারি কোয়ারেন্টাইনে থাকতে হবে। তবে দেশে ফেরা থেকে কোয়রান্টিনে থাকা, সব পরিষেবার জন্যই টাকা নেওয়া হবে ওই সব মানুষদের কাছ থেকে। তাঁদের কোথায় রাখা হবে, নিরাপত্তার জন্য কী কী ব্যবস্থা নেওয়া প্রয়োজন, তা ঠিক করবে সংশ্লিষ্ট রাজ্যের সরকার।মলদ্বীপ থেকে ভারতীয়দের ফেরাতে ইতিমধ্যেই রওনা দিয়েছে নৌবাহিনীর একটি জাহাজ। প্রথম দফায় ম্যালে থেকে ২০০ যাত্রীকে নিয়ে কোচি ফিরবে সেটি। সমুদ্রপথে তাতে সময় লাগবে ৪৮ ঘণ্টা। তার সমস্ত খরচও যাত্রীদেরই দিতে হবে। জলপথে যাত্রীদের ফিরিয়ে আনার জন্য, আইএনএস জলাশ্ব, আইএনএস শার্দুল এবং আইএনএস মগরকে পাঠানো হচ্ছে।

কেন্দ্রীয় অসামরিক বিমান পরিবহণ মন্ত্রক সূত্রে খবর, আগামী ৭ মে থেকে প্রথম পর্যায়ে সাত দিনে 8 হাজারেরও বেশি মানুষকে দেশে ফিরিয়ে আনা হতে পারে। আমেরিকা, ব্রিটেন ছাড়াও ফিলিপিন্স, সিঙ্গাপুর, বাংলাদেশ, সংযুক্ত আরব আমিরশাহী, সৌদি আরব, কাতার, মালয়েশিয়া, ফিলিপিন্স, ওমান, বাহরিন এবং কুয়েতে আটকে পড়া ভারতীয়দের ফেরানো হবে।আগামী ৭ মে থেকে দফায় দফায় ভিন্ দেশে আটকে পড়া ভারতীয়দের ফিরিয়ে আনা হবে বলে সোমবার একটি বিবৃতি প্রকাশ করে জানায় কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক। তার জন্য বিমান ও নৌবাহিনীর জাহাজ পাঠানো হবে বলে জানানো হয়।
প্রথম সাত দিনে যে আট হাজারেরও বেশি ভারতীয়কে ফেরানো হবে, তাঁদের সিংহভাগই কেরল, তামিলনাড়ু এবং দিল্লির বাসিন্দা। এই তিন রাজ্যে মোট ৩৭টি ফ্লাইট ঢুকবে। এ ছাড়া, মহারাষ্ট্র, তেলেঙ্গানায় আসবে ৭টি করে ফ্লাইট। গুজরাতে ৫টি, জম্মু ও কাশ্মীরে এবং কর্ণাটকে তিনটি করে আর উত্তরপ্রদেশে একটি ফ্লাইট ঢুকবে। সাত দিনে আসবে মোট ৬৪টি ফ্লাইট।দেশে ফেরার জন্য লন্ডন থেকে আহমেদাবাদ, মুম্বই, বেঙ্গালুরু আসার ভাড়া ধার্য হয়েছে ২০ হাজার টাকা। আমেরিকা থেকে ফেরার ভাড়া ১ লক্ষ টাকা। ঢাকা থেকে ১২ হাজার এবং সিঙ্গাপুর থেকে ১০ হাজার টাকা ভাড়া দিয়ে ফিরতে পারবেন আটকে থাকা ভারতীয়রা।

Show More

Related Articles

Back to top button
%d bloggers like this: