Big Story

এনপিআরে করতে যদি নথি না লাগে তাহলে আসামে ওরা কেন ডিটেনশান ক্যাম্পে : দেশ জুড়ে বিতর্কে

জাতীয় নাগরিকপঞ্জি নিয়ে উত্তপ্ত আবহের মধ্যেই ন্যাশনাল পপুলেশন রেজিস্টার (এনপিআর)-এ সবুজ সঙ্কেত দিল কেন্দ্র। বেশ কয়েকপা পিছিয়ে গেল ঝাড়খণ্ডে বিধানসভার ফলে।

নিজস্ব সংবাদদাতা : দেশজুড়ে বিতর্কে প্রধান মন্ত্রী ও স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী CAA ,NRC ও এনপিআর নিয়ে একরোখা মনভাব থেকে বেশ কিছুটা পিছিয়ে গিয়ে নতুন কৌশল অবলম্বন করছেন। কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভা নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন, এনপিআর-এর তথ্য আপডেট করার জন্য বাজেট বরাদ্দে অনুমোদন দিল । কিন্তু এই অনুমোদনে বলা হয়েছে অসম বাদে সব রাজ্য ও কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে ২০২০ সালের এপ্রিল থেকে সেপ্টেম্বর পর্যন্ত এনপিআর-এর কাজ চলবে বলে জানিয়েছে জাতীয় জনগণনা কমিশন। প্রশ্ন তাহলে কেন আসামের ক্ষত্রে এটা হল না কেন ? আর এর খরচ হবে ৮৫০০ কোটি টাকা।

বেশ গুঞ্জন চলছিল এ বার এনপিআর-এ বায়োমেট্রিক তথ্য নেওয়া হবে।এই বিষয়ে কেন্দ্রীয় তথ্য সম্প্রচার মন্ত্রী প্রকাশ জাভড়েকর বলেছেন , ” এনপিআর-এ বায়োমেট্রিকের প্রয়োজন নেই। আগের মতোই বাড়ি বাড়ি গিয়ে তথ্য সংগ্রহ করবেন সংশ্লিষ্ট কর্মীরা। তার জন্য কোনও পরিচয়পত্র বা নথি দিতে হবে না।” এর ফলে সিএএ-এনআরসি নিয়ে সাধারণ মানুষ এমনিতেই উদ্বিগ্ন। এর পর এনপিআর নিয়ে নতুন করে আতঙ্ক ছড়াতে পারে, আর চড়ুয়ে পড়তে পারে জাতি বিদ্বেষের ঘটনা। বেশ কিছুটা ব্যাকফুটে বিজেপি সরকার , তাই মন্ত্রীর ঘোষণা, এনপিআরএর জন্য কোনও নথি দিতে হবে না সাধারণ মানুষকে।

Show More

OpinionTimes

Bangla news online portal.

Related Articles

Back to top button
%d bloggers like this: