Entertainment

ছোটবেলার প্রিয় ‘শক্তিমান’,আবারও ফিরছে দূরদর্শনে

নস্ট্যালজিয়া উস্কে ফিরছে শক্তিমান, জানালেন মুকেশ খান্না

প্রেরনা দত্তঃ লকডাউনের জেরে বাড়ি তেই সারাদিন সময় কাটাতে হচ্ছে সকল্কে,সেই জন্যই এখন লকডাউনের একাকীত্বের সঙ্গি সুপার হিরো শক্তিমান। যে সুপারহিরোর নাম শুনলে বর্তমান যুবসমাজের অনেকেরই হয়তো ছেলেবেলার স্মৃতি মনে পড়ে যাবে৷ সুপারম্যান, ব্যাটমানদের সঙ্গেই প্রায় দু’ দশক আগে ভারতীয় শিশুদের সুপারহিরো হয়ে উঠেছিল শক্তিমান৷ লকডাউনের জেরে পাবলিক ডিম্যান্ডে আগেই দূরদর্শনের পর্দায় ফিরেছে রামায়ন, মহাভারত, সার্কাসের মতো জনপ্রিয় শো। এবার নব্বইয়ের নস্ট্যালজিয়াকে আরও খানিকটা উস্কে দিতে হাজির হচ্ছেন শক্তিমান।

রবিবার সোশ্যাল মিডিয়ায় শক্তিমানের অনুরাগীদের সঙ্গে এই খবর ভাগ করে নিলেন স্বয়ং শক্তিমান মানে অভিনেতা মুকেশ খান্না। তিনি টুইটারের দেওয়ালে লেখেন, ১৩০ কোটি ভারতীয় একসঙ্গে ফের একবার দূরদর্শনের পর্দায় শক্তিমান দেখার সুযোগ পারে। ঘোষণার জন্য অপেক্ষা করুন’।
১৯৯৭ সালে ১৩ ডিসেম্বর ‘শক্তিমান’ ধারবাহিক প্রথম পর্বটি সম্প্রচারিত হয়। এই ধারাবাহিকটি চলছিল ২০০৫ সাল পর্যন্ত। ২০১১ সালে শক্তিমানকে নিয়ে একটি অ্যানিমেটেড সিরিজ লঞ্চ হয় সোনিক চ্যানেলে, এরপর পোগো চ্যানেলে হামারা হিরো শক্তিমান বলে একটি টেলিফিল্ম সম্প্রচারিত হয় পোগোতে।

মানুষকে গৃহবন্দি করে রাখার জন্য দূরদর্শনের পর্দায় রামায়ণ, মহাভারতের মতো জনপ্রিয় অনুষ্ঠান দেখানো শুরু হয়েছে৷ রামায়ণ, মহাভারতের মতো পুরাণ কাহিনি বইতে পড়ার সুযোগ পেলেও শক্তিমানের সঙ্গে সেভাবে পরিচয় নেই এই প্রজন্মের শিশু, কিশোরদের৷ ফলে টিভি-র পর্দায় শক্তিমানের কাণ্ডকারখানা তাদের কাছেও যথেষ্ট উপভোগ্য হবে বলেই আশা করা যায়৷ এই ধারাবাহিকটি সঙ্গে বর্তমান প্রজন্মে বহু মানুষেরই ছোটবেলার স্মৃতি জড়িয়ে রয়েছে। ছোটদের নৈতিক মূল্যবোধ তৈরিতেও বড় ভূমিকা নিয়েছিল এই শক্তিমান ধারাবাহিকটি।

Show More

OpinionTimes

Bangla news online portal.

Related Articles

Back to top button
%d bloggers like this: