West Bengal

ডেঙ্গুর জ্বর কি আবারো কাড়ল আরোও এক প্রাণ ?

'ডেঙ্গু' নামক অসুর কেড়ে নিল আরও একটি প্রাণ

শীর্ষা  সেন :   পুজোর মরসুমেই ডেঙ্গুতেই আক্রান্ত হয়ে মারা গেলেন কলকাতা পৌর এলাকার আরো ও এক বাসিন্দা। মৃত তনিমা দাস (৩৩) ছিলেন হরিদেবপুর সোদপুর নিবাসী। এই শনিবার একবালপুরের এক হাসপাতালে তাকে মৃত বলে জানানো হয় , হাসপাতাল সূত্র থেকে জানা যায় ডেঙ্গির পাশাপাশি তিনি লিউকিমিয়ায়ও আক্রান্ত ছিলেন। 

তনিমার একটি এক বছরের পুত্র সন্তান রয়েছে। তাকে সামলাতে সামলাতেই তনিমার স্বামী রাজু দাস  জানান, অষ্টমীতে তনিমার চোখে রক্ত জমাট বাঁধতে দেখেন তিনি। পরদিন সকালে এম আর বাঙুরের জরুরী বিভাগে নিয়ে যান রাজু তাঁর স্ত্রীকে।  সেখান থেকে সামান্য ড্রপ দিয়ে ছেড়ে দেওয়া হয় ও মেডিসিনের ডাক্তার দেখানোর পরামর্শ দান করা হয়। ওইদিন সন্ধ্যের সময়ে সখেরবাজারে ডাক্তার দেখানোর পর তিনি তনিমাকে হাসপাতালে ভর্তি করার পরামর্শ দেন।   

এ দিন রাজু বলেন, ‘‘দুধের শিশুকে বাড়িতে রেখে মা হাসপাতালে ভর্তি হতে চায়নি।’’ কিন্তু গত শনিবার তনিমার অবস্থার অবনতি হয়। রাজু জানান, স্ত্রী বমি করছে দেখে দুপুরে একবালপুরের হাসপাতালে তাঁকে নিয়ে যান তিনি। ভর্তির কয়েক ঘণ্টার মধ্যে তনিমাকে ভেন্টিলেটরে দেওয়া হয়। কিছু ক্ষণ পরে চিকিৎসকেরা তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন।

রাজু জানান, তনিমার জ্বরের উপসর্গ ছিল না। বেসরকারি হাসপাতালে রক্ত পরীক্ষার পরেই ডেঙ্গু হবার  কথা জানতে পারেন তিনি। স্ত্রীর যে লিউকেমিয়া রয়েছে, তা-ও তাঁর জানা ছিল না। রাজুর কথায়, ‘‘বিয়ের পরে তনিমার সে রকম কোনও অসুখ হয়নি। ছেলে হওয়ার সময়েও কিছু ধরা পড়েনি। হয়তো নবমীতেই ওকে হাসপাতালে ভর্তি করলে এমন দুর্ঘটনা হত না।’’

পুর স্বাস্থ্য দফতরের এক আধিকারিক বলেন, ‘‘মৃতার অ্যাকিউট লিউকিমিয়া ছিল। স্বাস্থ্য ভবনে চিকিৎসা সংক্রান্ত রিপোর্ট পাঠানো হয়েছে। ডেঙ্গিতে মৃত্যু কি না, তারাই বলতে পারবে।’’

Show More

OpinionTimes

Bangla news online portal.

Related Articles

Back to top button
%d bloggers like this: