Women

ধর্ষণ ও খুনের প্রতিবাদে, অনশনে বসলেন দিল্লি মহিলা কমিশনার প্রধান স্বাতী মালিওয়াল

দেশে ঘটে যাচ্ছে অগণিত অপরাধ, কিন্তু প্রশাসন নির্বিকার থাকায় দিল্লির যন্তরমন্তরে এবারে গর্জে উঠল কয়েকশো মহিলার প্রতিবাদের ডাক।

@ দেবশ্রী : একের পর এক ঘটে যাচ্ছে, ধর্ষণ ও খুনের ঘটনা। কিন্তু নেওয়া হচ্ছে না কোনো রকম পদক্ষেপ। সরকার খুলছে না তাদের মুখ। এখনও হয়নি হায়দরাবাদের ঘটনার এক সপ্তাহ কিন্তু তার মধ্যেই ঘটে গিয়েছে আরও বেশ কিছু ধর্ষণ ও খুনের ঘটনা। যাতে দোষীদের শীঘ্রহি শাস্তি দেওয়া হয়, সেই জন্য প্রতিবাদের সুর নিয়ে অনির্দিষ্টকালের জন্যে অনশনে বসলেন দিল্লির মহিলা কমিশনের প্রধান স্বাতী মালিওয়াল।

হায়দরাবাদে পশু চিকিত্‍সক ধর্ষণ ও খুনের ঘটনা এবং রাজস্থানে ছ’‌বছরের শিশুকে ধর্ষণ ও খুনের ঘটনার প্রতিবাদে এদিন দিল্লির যন্তরমন্তরে কয়েকশো মহিলার সঙ্গে অনশনে বসেন দিল্লি মহিলা কমিশনের প্রধান। ধর্ষণকারীদের কঠোর শাস্তির দাবি জানান তিনি। অনশনে বসার পর থেকেই আসতে শুরু করেছে পুলিশদের তরফ থেকে হুমকি। স্বাতীকে শীঘ্র জন্তমন্তর খালি করে দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছে পুলিশ। দোষী সাব্যস্ত হওয়ার ছ’‌মাসের মধ্যে ধর্ষণকারীদের ফাঁসি দিতে হবে, তা সুনিশ্চিত্‍ করার জন্য আবেদন জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে একটি চিঠিও লেখেন স্বাতী মালিওয়াল। মহিলাদের নিরাপত্তা সংক্রান্ত বেশ কয়েকটি বিষয়েরও উল্লেখ করেছিলেন চিঠিতে স্বাতী। কিন্তু সেই চিঠির আজও কোনও জবাব এসে পৌঁছায়নি।

মহিলা কমিশন প্রধানের বক্তব্য, ‘‌নাবালিকা ও তরুণীদের ধর্ষণকারীদের বিরুদ্ধে ফাঁসির সাজা শোনাতে হবে। হায়দরাবাদ ও রাজস্থান কাণ্ডের ধর্ষণকারীদের মৃত্যুদণ্ড দিতে হবে। এর আগেও ধর্ষণের দায়ে যারা অভিযুক্ত তাদের বিরুদ্ধে নিতে হবে কঠিনতম থেকে কঠিনতম শাস্তি।

মহিলা কমিশন প্রধান স্বাতী মালিওয়াল আরও বলেন, গত বছরও প্রতিবাদ জানিয়েছিলাম। সেসময়ে সরকার আইন এনে জানিয়েছিল, কোনও নাবালিকার ধর্ষণকারীদের মৃত্যুদণ্ড দেওয়া হবে। কিন্তু সেসব কোনো কিছুই কার্যকর হয়নি। ‘ধর্ষণকারীদের জনসমক্ষে পিটিয়ে মারা উচিত’ বলে রাজ্যভায় মন্তব্য করে বিতর্কে জড়িয়েছিলেন সমাজবাদী পার্টির সাংসদ জয়া বচ্চন। হায়দরাবাদ কাণ্ডে এক অভিযুক্তের মা সংবাদমাধ্যমে জানিয়েছেন, ‘‌আমার ছেলেকেও ওইভাবেই পুড়িয়ে মারা উচিত।’‌

এত কিছুর পরেও সরকার রয়েছে চুপ। তারা নিচ্ছে না কোনো পদক্ষেপ। উল্টে কেউ প্রতিবাদ করলে, তাকে তা বন্ধ করার হুমকি দেওয়া হচ্ছে। এ কেমন রাম রাজ্যে বাস করছি আমরা যেখানে প্রতিনিয়ত সীতা শেষ হয়ে যাচ্ছে !

Show More

OpinionTimes

Bangla news online portal.

Related Articles

Back to top button
%d bloggers like this: