Life Style

তৈরী দুর্গোৎসব স্পেশাল মাস্ক, করোনা আবহে অনুভূতির নেই কমতি

করোনা যুদ্ধে অস্ত্র মাস্ক ও স্যানিটাইজার, আর তাতেই এবার পুজোর নতুন ফ্যাশন

দেবশ্রী কয়াল : যত দিন যাচ্ছে ততই বেড়ে চলেছে মহামারী করোনার প্রকোপ। দেশে প্রতিদিন ৫০ হাজারের উর্ধে মানুষ করোনা আক্রান্ত হয়ে পড়ছেন। যদিও সুস্থ হয়ে ওঠার সংখ্যাটাই কিন্তু বেশি। যাদের শারীরিক অবস্থা আগে থেকেই খারাপ, বা অন্য কোনো গুরুতর রোগে আক্রান্ত সেই ক্ষেত্রে ঝুঁকি একটু বেড়ে যায়। নাহলে কিন্তু এই করোনা মারণাত্মক নয়। আর সেই কথা খোদ বলছেন চিকিৎসক বিশেষজ্ঞেরা। তবে এর মানে এটা কিন্তু একদম নয় যে, সবাই খুব স্বাভাবিকভাবে বিনা কোনো নিয়ম মেনে চলবে। তা কিন্তু নয়। অবশ্যই ব্যবহার করতে হবে ফেস মাস্ক এবং স্যানিটাইজারের। কারন এই করোনা যুদ্ধে এই দুটোই প্রধান অস্ত্র এখন প্রত্যেক মানুষের।

এদিকে হাতে আর মাত্র কয়েকদিন, তারপরেই হবে মর্ত্যে মা উমার আগমন। চলছে তারই প্রস্তুতি। করোনা আবহ হলে কী হবে, মানুষের অনুভূতিতে তা কিন্তু একটুও আঁচড় টানতে পারেনি। বরং মানুষ অপেক্ষায় রয়েছেন কবে আসবে মা। বাঙালীর শ্রেষ্ঠ পূজা, দূর্গা পূজা। বাঙালীরা কিন্তু সারা বছর অপেক্ষা করে থাকেন পূজার এই কটা দিনে আনন্দে মেতে ওঠার জন্যে। আর শুধুই বাঙালী কেন, প্রত্যেকটা জাতির মানুষই দীর্ঘ অপেক্ষায় থাকেন দূর্গা পূজাতে সামিল হবে বলে।

তবে এবারে করোনা পরিস্থিতিতে অন্য বছরের তুলনায় তেমন জাঁকজমক থাকবে না, সারা রাত ধরে হয়ত পূজাতে ঘোরা হবে না, বহু নিয়ম মেনে তার পরেই রাস্তায় বের হতে হবে। কিন্তু তার পরেও মানুষের মনে রয়েছে সেই একই অনুভূতি। আর যেহেতু এবারে মাস্ক বাধ্যতামূলক, তাই এবার মাস্ক পরে নিয়েছেন কিন্তু মা নিজেও তাঁর ছেলেমেয়েদের কে সচেতন করতে। আর পূজাতে ফ্যাশন হবে না সেটা ঠিক মেনে নেওয়া যায় না। আর এবারের ফ্যাশন কিন্তু মাস্ক। দূর্গা পূজাতে সপ্তমী থেকে দশমী পর্যন্ত পড়ার জন্যে ও তৈরী অভিনব সব মাস্ক। যেখানে লেখা থাকবে মহা সপ্তমী বা মহা অষ্টমী। অর্থাৎ করোনা অস্ত্রই কিন্তু এখন ফ্যাশন।

Tags
Show More

Related Articles

Leave a Reply

Back to top button
Close
Close
%d bloggers like this: