Nation

যাত্রী নিয়েই নিখোঁজ বিমান মাঝপথে, শুরু হয়েছে তল্লাশি

৬২ যাত্রী নিয়ে জাকার্তা থেকে পন্টিয়ানাক যাওয়ার পথে ইন্দোনেশিয়ায় একটি বোয়িং ৭৩৭ বিমান মাঝ আকাশে নিখোঁজ হয়েছে।

পৃথা কাঞ্জিলাল : নতুন বছরে বিপত্তি। প্লেন ছড়াতে বিভ্রাট। উড়ান শুরু করার কিছুক্ষণের মধ্যেই রহস্যজনকভাবে নিখোঁজ হয়ে গেল ইন্দোনেশিয়ার একটি যাত্রীবাহী বিমান। শনিবারের এই ঘটনা রীতিমতো MH-370 ‌বিমান দুর্ঘটনার পুরোনো স্মৃতি আরও একবার উসকে দিল। ছয় জন শিশুসহ ৫৯ জন যাত্রী নিয়ে নিখোঁজ হয়েছে এই যাত্রীবাহী বিমানটি। বিমানটি আদৌ কোনো দুর্ঘটনার কবলে পড়েছে কিনা সে সম্পর্কে এখনো কিছু জানা যায়নি। বিমানটিকে খুঁজে পাওয়ার উদ্দেশ্যে তল্লাশি ইতিমধ্যে শুরু হয়েছে।

SJY 182 নামে শ্রীউইজায়া এয়ার ফ্লাইটের ওই যাত্রীবাহী বোয়িং ৭৩৭ বিমানটি এদিন জাকার্তা থেকে পন্টিয়ানাকের উদ্দেশ্যে রওনা দেয়। বিমানের ক্রু মেম্বাররা ছাড়াও এদিন ওই বিমানে অন্তত ৫৯ জন যাত্রী ছিলেন বলে জানা গিয়েছে। এদের মধ্যে ছয়টি শিশুও ছিল। বিশিষ্ট সূত্রে খবর, জাকার্তার Soekarno-Hatta বিমানবন্দর থেকে উড়ান শুরু করার কিছুক্ষণের মধ্যেই বিমানের সঙ্গে এয়ার ট্রাফিক কন্ট্রোল রুমের অধিকর্তাদের যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে পর। সংশ্লিষ্ট দপ্তরের আধিকারিকেরা জানিয়েছেন, যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে যাওয়ার ঠিক এক মিনিট পূর্বে বিমানটি প্রায় ৩০০০ ফুট নিচে নেমে যেতে থাকে এবং কি কারণে বিমানটির সাথে এমন ঘটনা ঘটলো সে সম্পর্কে এখনো কিছু জানাতে পারেনি ওই বিমান সংস্থা। সংশ্লিষ্ট সংস্থার দাবি, আপাতত বিমানটিকে খুঁজে পাওয়ার জন্য জোর তল্লাশি চালানো হচ্ছে। সেটিকে খুঁজে পাওয়ার পরেই সমস্ত তথ্য সবিস্তারে জানা যাবে বলে জানানো হয়েছে।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, এই দিনের ঘটনা মালয়েশিয়ার নিখোঁজ MH-370 বিমানের স্মৃতি মনে করিয়ে দিয়েছে। ২০১৪ সালের ৮ই মার্চ, কুয়ালালামপুর থেকে বেজিংয়ের উদ্দেশ্যে রওনা দিয়েছিল বিমানটি। আশ্চর্যজনক ভাবে ২৩৯ জন যাত্রী নিয়ে আকাশপথেই সম্পূর্ণ হারিয়ে যায় বিমানটি। এ পর্যন্ত তার কোনো খোঁজ পাওয়া যায়নি। মালয়েশিয়ার সামরিক রাডার অবশ্য জানিয়েছিল, গন্তব্য পথের ঠিক উল্টো পথ ধরে ছিল ওই অভিশপ্ত বিমানটি। তার পরে অবশ্য তার কোন খোঁজ পাওয়া যায়নি। ইন্দোনেশিয়ায় এর আগেও দুড়ি বড় বিমান দুর্ঘটনা ঘটেছে। তার মধ্যে 737 ম্যাক্স বোয়িং বিমান ছিল। তবে এদিন যে বিমানটি বেপাত্তা হয়েছে সেটি ম্যাক্স ক্যাটেগরির নয়। তবে বিমানটির যান্ত্রিক ত্রুটি থাকা সত্ত্বেও কেন ওড়ানো হয়েছিল, তা নিয়ে ইতিমধ্যে প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে।

Show More

Related Articles

Leave a Reply

Back to top button
%d bloggers like this: