Youth

গঙ্গার ধার থেকে উদ্ধার হল নিট পরীক্ষার্থীর মৃতদেহ, মৃত্যুর কারন নিয়ে তৈরী হয়েছে ধোঁয়াশা

মঙ্গলবার থেকে নিখোঁজ ছিল অভীক, শুক্রবার মিলল দেহ, শুরু হয়েছে ঘটনার তদন্ত

দেবশ্রী কয়াল : আগামী রবিবার দেওয়ার কথা ছিল নিট পরীক্ষা, কিন্তু দেওয়া আর হল না। কোন্নগরের নিখোঁজ নিট পরীক্ষার্থী অভীক মন্ডলের মৃতদেহ উদ্ধার হয় আজ ভদ্রকালী গঙ্গার ঘাট থেকে। আজকে ১১ই সেপ্টেম্বর সকালে স্থানীয় মানুষজন গঙ্গার ধারে এক অজানা যুবকের মৃতদেহ দেখতে পান। দ্রুত খবর দেওয়া হয় পুলিশে, এরপর উত্তরপাড়া থানার অফিসারেরা ঘটনাস্থলে পৌঁছে মৃতদেহ উদ্ধার করেন। মৃতদেহ শনাক্ত করেন ছাত্রের বাবা সুভাষ মন্ডল।

গত মঙ্গলবার থেকে নিখোঁজ ছিল এই পরীক্ষার্থী। মঙ্গলবার সন্ধেবেলা পাড়ার একটি সাইবার ক্যাফে থেকে নিট পরীক্ষার অ্যাডমিট কার্ড আনতে বেরিয়েছিল অভীক। বাড়িতে মাকে বলে বের হয়েছিল ১৫ মিনিটের মধ্যেই বাড়ি ফিরবে। কিন্তু রাত ন’টা বেজে গেলেও ছেলে বাড়ি না ফেরায় চিন্তিত হয়ে পড়েন তার বাবা-মা। শুরু হয় বিভিন্ন জায়গায় খোঁজখবর নেওয়া। এরপর ওই রাতেই কোন্নগরের গঙ্গার ঘাট থেকে উদ্ধার হয় অভীকের সাইকেল। অভীকের বাবা সুভাষ মণ্ডল কলকাতা পুলিশের কর্মী। অনেক রাত পর্যন্ত খোঁজখবর করেও অভীকের সন্ধান না মেলায় ঐদিনই উত্তরপাড়া থানায় নিখোঁজ ডায়েরি করেন সুভাষবাবু।

আগামী ১৩ তারিখ রবিবার কলকাতার মিন্টো পার্কে নিট পরীক্ষা দিতে যাওয়ার কথা ছিল অভীকের। এদিন সন্তানের মৃতদেহ উদ্ধারের খবরে ভেঙে পড়েছে অভীকের পরিবার। মৃত ছাত্রের বাবা সুভাষ মন্ডল এদিন সংবাদমাধ্যমে বলেন,’ ছোটো থেকেই পড়াশোনায় অত্যন্ত মেধাবী ছিলো অভীক। বাড়িতে তো কোনওরকম বকাঝকাও করা হয়নি তাকে। তাহলে কীভাবে, কেন এই ঘটনা কিছুতেই বুঝতে পারছি না।’

মৃত অভিকের মোবাইল থেকে এক তরুণীর নাম উদ্ধার করা গেছে। সে বিষয়ে পুলিশকে তদন্ত করার জন্যে অনুরোধ জানিয়েছেন মৃতের বাবা। সূত্রের খবর ঘটনার দিন অর্থাৎ মঙ্গলবার বাড়ি থেকে বের হওয়ার আগেই অভীক তার মোবাইল ফোনে ফেসবুক আর হোয়াটসঅ্যাপ দু’টি অ্যাপই ডিলিট করে দেয়। তারপর মোবাইল ফোনটি বাড়িতে রেখে যায়। পড়াশোনার চাপ, অভিভাবকের সঙ্গে মান অভিমান, না কি অন্য কোনও কারণ। কী হয়েছিল মঙ্গলবার রাতে বা তার পরে ? এই মৃত্যুর রহস্য খুলতেই ইতিমধ্যে শুরু হয়ে গেছে তদন্ত কার্য।

Show More

Related Articles

Leave a Reply

Back to top button
%d bloggers like this: