West Bengal

বিস্ফোরক অধীর, বাংলায় ডেমোক্রেসি নয় মমতাক্রেসি চলছে

মমতাকে বিঁধে একাধিক ট্যুইট অধীরের, রাজ্য পুলিশের উপর ভরসা নেই বিজেপি নেতৃত্বদের

দেবশ্রী কয়াল : আবারও মমতার বিরুদ্ধে ট্যুইট করে কটাক্ষ কংগ্রেস প্রদেশ নেতা অধীর রঞ্জন চৌধুরীর। এদিন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়ের উদ্দেশ্যে ট্যুইট করে অধীর রঞ্জন লেখেন, ” থানার সামনে বিজেপি নেতার খুন নিয়ে অনেক প্রশ্ন উঠছে এবং উঠবে। দিদি আপনি চাইলে খুনি ধরা পড়বে। আপনি না চাইলে অ্যারেস্ট হয়তো কেউ হবে কিন্তু প্রকৃত খুনি অ্যারেস্ট হবে না। বাংলায় অবিলম্বে রাজনৈতিক খুন বন্ধ হোক, বিরোধী মানে প্রতিপক্ষ, বিরোধী মানে কিন্তু শত্রু নয়। সারা দেশে সব থেকে বেশি রাজনৈতিক খুন হয় এই বাংলার বুকেই।”

এরপর তিনি আরও লেখেন, ” বদলা নয়, বদল চাই বলেছিলেন, সে কথা ভুলে গেলেন দিদিভাই? বাংলায় ল এন্ড অর্ডার নেই, যা আছে তা হলো – ডেমোক্রেসির বদলে মমতাক্রেসি, যার আর এক নাম – অটোক্রেসি। কিন্তু মনে রাখবেন চিরদিন ক্ষমতায় আপনি থাকবেন না বাংলার।” এইরকম ধারাবাহিক ট্যুইটারে মুখ্যমন্ত্রী বিঁধে মন্তব্য করে গেছেন কংগ্রেস প্রদেশ নেতা অধীর রঞ্জন। বাংলায় যেন রাজনৈতিক খুন বন্ধ হয়। বাংলাতে শান্তি বজায় রাখার জন্যে বলেছেন তিনি। বিজেপি নেতা মনীশ শুক্লা মারা যাওয়ার পর বিজেপি নেতাদের দাবি এর পিছনে দায়ী তৃণমূল দল আশ্রিত দুষ্কৃতীরা।

এদিন ট্যুইট করে লেখেন, “সি.আই.ডি, পুলিশ কারোর কোনো ক্ষমতা নেই আপনার কথার বাইরে গিয়ে তদন্ত করে। দিদির দালালরা বাজারে নেমে গেছেন ‘হ্যা’-কে ‘না’ করতে। বাংলার পুলিশমন্ত্রী এ বাংলায় রাজনৈতিক খুন ও বিরোধীদের উপর আক্রমণের রাজনীতি বন্ধ হোক।” বিজেপি নেতারা সাফ জানিয়েছে রাজ্য পুলিশের উপর তাদের কোনো আস্থা নেই তাই এই ঘটনার তদন্তের জন্যে তাঁরা সিবিআই তদন্তের জন্যে দাবি জানাচ্ছে। রাজ্যের তরফ এ খুনের কিনারা করার ভার দেওয়া হয়েছে সিআইডিকে। তদন্তে নেমে গতকাল ২ জনকে গ্রেপ্তার করে তদন্তের গতি বাড়িয়েছেন আধিকারিকরা। তবে এখনও এই বিষয় নিয়ে বিশেষ কোনও মন্তব্য রাখেননি আধিকারিকেরা। হয়ত আজ সংবাদিক সম্মেলন করে সেই বিষয় থেকে পর্দা সরাতে পারেন তাঁরা।

Show More

Related Articles

Leave a Reply

Back to top button
%d bloggers like this: