Nation

গ্রেফতার অর্নব গোস্বামী, ধ্বস্তাধস্তি ও ধাক্কাধাক্কি করে তোলা হয় পুলিশ ভ্যানে

আত্মহত্যার ঘটনাকে কেন্দ্র করে অভিযোগ অর্নবের বিরুদ্ধে, ঘটনায় ক্ষোভ প্রকাশ কেন্দ্র সরকারের

দেবশ্রী কয়াল : সাংবাদিক জগতে বেশ জনপ্রিয় সমালোচিত নাম অর্ণব গোস্বামী (Arnab Goswami) । তবে তাঁর হাতে এবার পড়ল হাতকড়ি। ভারতের আলোচিত টেলিভিশন চ্যানেল রিপাবলিক টিভির এডিটর-ইন-চিফ অর্ণব গোস্বামীকে গ্রেফতার করেছে মহারাষ্ট্র রাজ্যের পুলিশ। আর এই ঘটনাকে নিশ্চিত করেছে রিপাবলিক টিভি তাদের অফিসিয়াল ট্যুইটারের মাধ্যমে। জানা যায় আজ সকালে অর্ণব গোস্বামীকে তার বাড়ি থেকে পুলিশ গ্রেফতার করে নিয়ে গেছে।

সংবাদ সংস্থা পিটিআই তরফে জানা যায়, ৫৩-বছর বয়সী একজন ইন্টেরিওর ডিজাইনারের আত্মহত্যার ঘটনার সঙ্গে অর্ণব গোস্বামীর সম্পর্ক ছিল বলে ধারণা করা হচ্ছে। ২০১৮ সালে ইন্টিরিওর ডিজাইন তথা আর্কিটেক্ট অন্বয় নায়েক ও কুমুদ নায়েকের মৃত্যুর ঘটনায় আটক করা হয়েছে অর্ণব গোস্বামীকে। এই আত্মহত্যার ঘটনাটি অবশ্য দুই বছর আগের ঘটনা। এদিন অর্ণব গোস্বামীর গ্রেফতারের ঘটনায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছে ভারতের কেন্দ্রীয় সরকার। এই বিষয়ে মন্ত্রী প্রকাশ জাভেড়কর ঘটনাকে গণমাধ্যমের ওপর আঘাত বলে মন্তব্য করেছেন। তিনি বলেন, “এটা জরুরি অবস্থার কথা মনে করিয়ে দিচ্ছে।” ইউনিয়ন মিনিস্টার রবি শংকর প্রসাদ বলেন, অর্ণব গোস্বামীর গ্রেফতার অবশ্যই নিন্দনীয়, অযৌক্তিক ও দুশ্চিন্তার বিষয়। বিজেপির নেতা জয় পান্ডা পুলিশের সমালোচনা করে বলেন, বিষয়টিকে অঘোষিত এক জরুরি অবস্থার মতো মনে হচ্ছে।

জানা গিয়েছে মুম্বই পুলিশ ও রায়গড় পুলিশের যৌথ বাহিনী অর্ণব গোস্বামীকে গ্রেফতার করে তাকে রায়গড় থানায় নিয়ে গিয়েছে। সেখান থেকে তাঁকে আলিবাগে নিয়ে যাওয়া হবে বলে জানা যাচ্ছে। এরপর রিপাবলিক টিভি তাদের বিবৃতিতে অভিযোগ করেছে, অর্ণব গোস্বামীকে নিয়ে যাওয়ার সময় তাকে শারীরিকভাবে লাঞ্ছিত করা হয়েছে। এছাড়া খোদ অর্ণবের অভিযোগ তাঁকে হেনস্থা করেছে পুলিশ। তাঁর পরিবারের লোকের সঙ্গেও পুলিশ অভব্য আচরণ করেছে বলে অভিযোগ।অর্ণবকে গ্রেফতার করার পর সংবাদ সংস্থা এএনআই-এর তরফে একটি ভিডিও সামনে আনা হয়েছে। যেখানে দেখা যাচ্ছে পুলিশের দল অর্ণব গোস্বামীকে একটি পুলিশ ভ্যানে তুলেছে। ভিডিওতে দেখা গিয়েছে, রীতিমতো ধ্বস্তাধস্তি ও ধাক্কাধাক্কি করে পুলিশ ভ্যানে তোলা হয়।

Show More

Related Articles

Leave a Reply

Back to top button
%d bloggers like this: