Big Story

হিজাব বিতর্কে জ্বালামুখীর বিস্ফোরণ বজরং দলের নেতার খুনে, ধর্ম সংকটে কর্ণাটক

এই খুনের ঘটনার সঙ্গে অন্তত চার থেকে পাঁচ জন জড়িত রয়েছে বলে মনে করা হচ্ছে

তিয়াসা মিত্র : কর্ণাটক নামটি এখন মাথায় এলেই প্রথমে যে বিশ্লেষণ মনে পরে “হিজাব বিতর্ক” আর সেই হিজাব বিতর্কে এখনো ইতি চিহ্ন পড়েনি। কিন্তু এরই মধ্যে খুন হলো বজরং দলের নেতা হর্ষ-কে। ঘটনার ফলে এলাকার পারদ চড়েছে বেশ কয়েক জায়গাতে।

সূত্রে জানা যাচ্ছে, এই দুর্ঘটনা হওয়ার পর এক দল হিন্দু বাদী বিষয়টি যে হিজাব বিতর্কের সাথে জড়িত তা মেনে নিয়ে বেশ কয়েকটি গাড়িতে আগুন জ্বালিয়ে দেয়। পরিস্থিতি যাতে এর বাইরে না যায় সেই কারণে পুলিশ তৎক্ষণাৎ বেবস্থা নেন। রাস্তার নামিয়ে দেওয়া হয়ে রায়েফ। শুধু তাই নয় জারি করা হয় ১৪৪ ধারা। পুলিশ সূত্রে জানা গেছে বিষয়টি, রবিবার রাত সাড়ে ন’টা নাগাদ খুন হন বজরং দলের যুব কর্মী হর্ষ। কয়েক জন দুষ্কৃতী তাঁকে ঘিরে ধরে ছুরি চালিয়ে পালিয়ে যায়। তাঁকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে চিকিৎসকরা মৃত বলে ঘোষণা করেন। ঘটনার পরই শিবমোগা শহরের সিগেহাট্টি এলাকায় উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। বেশ কয়েকটি গাড়িতে আগুন লাগিয়ে দেওয়া হয়।

ঘটনার বিবৃতিতে কর্ণাটকের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী অবশ্য দাবি করেন, এই ঘটনার সাথে হিজাব বিতর্কের কোনো যোগ সূত্র নেই। তিনি সবাইকে শান্ত থাকার আহ্বান জানিয়েছেন। তিনি বলেন, ‘‘তদন্ত চলছে। খুব শীঘ্রই দোষীদের গ্রেফতার করা হবে।’’ পুলিশ সূত্রে খবর, খুনের তদন্তে একটি বিশেষ দল গঠন করা হয়েছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে এলাকায় রায়েফ নামানো হয়েছে। এই খুনের ঘটনার সঙ্গে অন্তত চার থেকে পাঁচ জন জড়িত রয়েছে বলে মনে করা হচ্ছে।

Show More

OpinionTimes

Bangla news online portal.

Related Articles

Leave a Reply

Back to top button
%d bloggers like this: