mamata banerjeeWest Bengal

‘বাংলায় তৃণমূল কংগ্রেস জিতছে, জিতবে’ : জলপাইগুড়ির জনসভায় মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

মঙ্গলবার জলপাইগুড়ির সভা থেকে দলকে একজোট হয়ে মানুষের সঙ্গে যোগাযোগ বাড়ানোর বার্তা দিলেন মুখ্যমন্ত্রী

পল্লবী কুন্ডু : বিধানসভা নির্বাচনের আগে উত্তরবঙ্গ সফরে বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়(Mamata Banerjee)। সফরে জলপাইগুড়ি(Jalpaiguri)র জনসভায় এদিন মুখ্যমন্ত্রী দাবি করেন, নির্বাচনের সময়েই গোর্খাল্যান্ডের ইস্যু জিইয়ে তোলে বিজেপি। তবে পাহাড়ে স্থায়ী ভাবে রাজনৈতিক সমাধানের করতে পারে কেবলমাত্র তৃণমূল। এই সফরে প্রশাসনিক কাজ সেরে নেওয়ার ফাঁকে নিজের দলকেও চাঙ্গা করার লক্ষ্য রয়েছে মমতার। মঙ্গলবার জলপাইগুড়ির সভা থেকে দলকে একজোট হয়ে মানুষের সঙ্গে যোগাযোগ বাড়ানোর বার্তা দিলেন তিনি।

পাশাপাশি ওই মঞ্চ থেকেই বিজেপি তথা মোদী সরকারের বিরুদ্ধে তোপ দাগলেন মমতা। এনআরসি বা এনপিআর ইস্যু থেকে শুরু করে রবীন্দ্রনাথের রচিত জাতীয় সঙ্গীত বদলের বিজেপি নেতার প্রস্তাব নিয়েও মুখ খোলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। উত্তরবঙ্গ সফরের অঙ্গ হিসেবে মঙ্গলবার জলপাইগুড়িতে পৌঁছন মুখ্যমন্ত্রী। দুপুরে জলপাইগুড়িতে জনসভা করেন তিনি। এদিনের বক্তব্যেই মমতা বলেন, বাংলাই ভারতকে পথ দেখাবে। তিনি এও বলেন বাংলায় তৃণমূল কংগ্রেস জিতছে, জিতবে।

একুশে নির্বাচনের আগে দলীয় সকল কর্মীকে জোটবেঁধে কাজ করার পরামর্শ দেন মুখ্যমন্ত্রী। তিনি বলে, পুরনো-নতুন মিলে কাজ করুন। আপনাদের লক্ষ্য, বিজেপি নামক পার্টিকে দূর করে দেওয়া। বাংলাকে গুজরাত হতে দেব না। হিন্দু নয়, হিংসা ও কুত্‍সার ধর্ম তৈরি করেছে বিজেপি। পাশাপাশি তিনি এও বলেন যে, এত কাজ করেও লোকসভা ভোটে উত্তরবঙ্গে কোনও আসন পেলাম না। রবীন্দ্রনাথের রচিত জাতীয় সঙ্গীত বদলের বিজেপি নেতার প্রস্তাব নিয়ে এদিন মমতা বলে,”কবিগুরুর ‘জন গণ মন’ পাল্টে দেখুন, কী হয়!” এদিনের বক্তৃতায় নির্বাচনের আগে অন্যতম বড়ো প্রকল্প দদুয়ারে সরকার নিয়েই তিনি বলেন,’যাঁরা পরিষেবা পাননি, দুয়ারে সরকার ক্যাম্পে যান।’

উত্তরবঙ্গের ৩৭০টি বাগানের চা শ্রমিককে পাকা বাড়ির প্রতিশ্রুতি দেন মুখ্যমন্ত্রী। রাজবংশীদের উন্নয়নে যে একাধিক পদক্ষেপ করা হয়েছে সেই বিষয়টিকেও এদিন উল্লেখ করেন তিনি। তিনি সকলকে আস্বাস দেন যে, বন্ধ চা বাগানের শ্রমিকদের বিনামূল্যে ভাতা-রেশন দেওয়া হবে। এর সাথে পূর্বে যে সরকার ছিল তাদের কাজ নিয়েও প্রশ্ন তোলেন এদিন। তিনি বলেন,’আগে যারা সরকারে ছিল, তার কী কাজ করেছে? ভোট এলেই বিজেপি গোর্খাল্যান্ডের কথা বলে। পাহাড়ের স্থায়ী রাজনৈতিক সমাধান আমরাই করব।’পাশাপাশি তিনি আরো বলেন,’ বিজেপি বলেছিল ২০১৪-তে ২ কোটি চাকরি দেবে। বিজেপি ১৫ লক্ষ করে টাকা দেওয়ার কথা বলেছিল। পেয়েছেন? বিজেপি-র প্রতিশ্রুতি মানে প্রতারণা।’

এছাড়াও মুখ্যমন্ত্রী তার এদিনের বক্তব্যে এনআরসি,আলিপুরদুয়ারের এবং জলপাইগুড়িতে সকল সরকারি পরিষেবা এবং পরিযায়ী শ্রমিকদের নিয়েও মত প্রকাশ করেছেন।

Show More

Related Articles

Leave a Reply

Back to top button
%d bloggers like this: