Nation

জাতির জনক গান্ধীজির জন্মবার্ষিকী উৎযাপন শ্রদ্ধার্ঘ জ্ঞাপন রাষ্ট্রপতি, প্রধামন্ত্রী বাংলার মুখ্যমন্ত্রীর

দুই মহাপুরুষের জন্মদিন উপলক্ষেই আজ রাজারহাটে এবং বিজয়ঘাটে দুই নেতাকে শ্রদ্ধা জানালেন রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ এবং প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।

পল্লবী কুন্ডু : একাধারে রাজনীতিবিদ অন্যদিকে নয়া যুগের পথপ্রদর্শক যাকে আমরা জাতির জনক বলে থাকি, মোহনদাস করমচাঁদ গান্ধী।আজ তার ১৫১ তম জন্মবার্ষিকী উদযাপনে সামিল দেশের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। শুধু গান্ধীজিই নয়, আজ লাল বাহাদুর শাস্ত্রীরও জন্মবার্ষিকী। আর এই দুই মহাপুরুষের জন্মদিন উপলক্ষেই আজ রাজারহাটে এবং বিজয়ঘাটে দুই নেতাকে শ্রদ্ধা জানালেন রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ এবং প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।

গান্ধীজির সেখান পথ তার চিন্তাধারায় অনুপ্রাণিত হয়েছে বহু মানুষ। আর আজ দুই রাষ্ট্রনেতার জন্মজয়ন্তীর প্রাক্কালে জাতির উদ্দেশ্যে ভাষণে রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ সেই সত্য ও অহিংসার আদর্শ অনুসরণ করার জন্য জনগণকে আবেদন জানান। তিনি নাগরিকদের একটি পরিচ্ছন্ন ও সমৃদ্ধ ভারতের জন্য প্রচেষ্টা করার কথাও বলেন।এদিন রাষ্ট্রপতি টুইটে বলেন, ‘গান্ধী জয়ন্তীতে বাপুকে শ্রদ্ধা জানাচ্ছি। তাঁর সত্য, অহিংসা এবং ভালবাসার বার্তা সমাজে সম্প্রীতি এবং সাম্যতা বয়ে নিয়ে বিশ্ব কল্যাণের পথ প্রশস্ত করে। তিনি আজও সমস্ত মানবতার জন্য অনুপ্রেরণার উত্‍স হিসাবে রয়েছেন।’

শুধুমাত্র রাষ্ট্রপতি এবং প্রধানমন্ত্রী নন, আজকের এই দিনে গান্ধীজিকে শ্রদ্ধা জ্ঞাপন করেছেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ও।টুইটে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ‘মহাত্মা গান্ধীর তাঁর ১৫১ তম জন্মবার্ষিকীতে শ্রদ্ধা নিবেদন করছি। গান্ধীজী, নেতাজি, রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর, মৌলনা আজাদ, আম্বেদকর এবং অন্যদের মতো স্বাধীনতা ও গণতন্ত্রের জন্য অক্লান্তভাবে লড়াই করেছিলেন। আমরা কি এত সহজেই সেই স্বাধীনতা ছেড়ে দেব? বাপুর দর্শনের চেয়ে এখন আরও প্রাসঙ্গিক হয়ে উঠেছে।’ পাশাপাশি আরেকটি টুইটে মমতা জানিয়েছেন, ‘আসুন, গান্ধীজির অহিংসা দর্শনের স্মরণে আজ আমরা আন্তর্জাতিক অহিংস দিবস হিসেবে এই দিনটিকে উদযাপন করি। পূর্ব মেদিনীপুর জেলায় গান্ধীজির স্মরণে একটি বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠা করছে পশ্চিমবঙ্গ সরকার। তরুণ প্রজন্মের মধ্যে বাপুর বার্তা ছড়িয়ে দিতে হবে।’

Show More

Related Articles

Leave a Reply

Back to top button
%d bloggers like this: