West Bengal

স্পেশ্যাল ট্রেন হিসাবেই চালু হচ্ছে বিশ্বভারতী, শান্তিনিকেতন, অগ্নিবীণা এক্সপ্রেস

আগামী ১১ তারিখ থেকে পুনরায় ট্রেনের পরিসেবা চলতে শুরু করবে

চৈতালি বর্মন : করোনা আবহে নিউ নর্মালে দূরপাল্লার ট্রেনের পাশাপাশি যাত্রীবাহী ট্রেন(Local Train)ও চলতে শুরু করেছে। তবে যাত্রী অপ্রতুল হওয়ার কারণে বহু স্টেশন তুলে দেওয়া হয়েছে। যার জন্য বেড়েছে ট্রেনের গতি। এজন্য সময়ের হেরফের হয়েছে অনেক ট্রেনের। ফলে যাত্রীদের বিভ্রান্তিতে ভুগতে হচ্ছে। তাই এবার মালবাহী ও যাত্রীবাহী ট্রেন যাতে সুস্থভাবে পরিচালনা করা যায় তার ভারতীয় রেল ‘‌জিরো-বেসড টাইম টেবিল’‌ নিয়ে আসবে খুব শীঘ্রই। রেল বোর্ডের চেয়ারম্যান ও সিইও ভিকে যাদব বলেছেন(Railway Board Chairman and CEO VK Yadav), ‘‌রেলের নতুন জিরো-ভিত্তিক টাইম টেবিল দুরপাল্লার ট্রেনগুলিতে গড়ে ৩০ মিনিট থেকে ৬ ঘণ্টার মধ্যে ভ্রমণের সময়টি কমিয়ে আনা হবে বলে আশা করা যাচ্ছে।’‌

নিত্যযাত্রীদের দাবি আর চাহিদার কথা মাথায় রেখে এবার নড়েচড়ে বসলো পূর্ব রেল কর্তৃপক্ষ। বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে জানিয়ে দেওয়া হল চলতি মাস থেকেই চালু হয়ে যাচ্ছে বিশ্বভারতী ফার্স্ট প্যাসেঞ্জার, শান্তিনিকেতন এক্সপ্রেস ও অগ্নিবীণা এক্সপ্রেস। চালু হচ্ছে গণদেবতা এক্সপ্রেস ও হাওড়া মালদা টাউন ইন্টারসিটি এক্সপ্রেসও। তবে এই পাঁচটি ট্রেনই এখন স্পেশ্যাল প্যাসেঞ্জার বা স্পেশ্যাল এক্সপ্রেস ট্রেন হিসাবেই চলবে। তাই যাত্রীদেরও ভাড়ার অতিরিক্ত অর্থ গুণতে হবে। তবে তাঁদের যাত্রার সময়সীমা, রুট ও স্টপেজ একই থাকছে বলে জানা গিয়েছে। তবে এখনও ময়ূরাক্ষী ফার্স্ট প্যাসেঞ্জার, শহিদ এক্সপ্রেস, হুল এক্সপ্রেস কবে থেকে চালু হবে সে নিয়ে কোনও বার্তা দেয়নি পূর্ব রেল কর্তৃপক্ষ। জানা গিয়েছে এই ট্রেনগুলি আগামী ১১ তারিখ থেকে হাওড়া থেকে চলাচল করা শুরু করবে। জেলার গন্তব্য থেকে সেগুলি ফিরতি পথে সেদিন বা তারপরের দিন যাত্রা শুরু করবে।

ধীরে ধীরে রাজ্যের ট্রেন পরিষেবা স্বাভাবিকের পথে। প্রথম দফায় শহরতলী এলাকায় লোকাল ট্রেন পরিষেবা চালু করে ভারতীয় রেল সেই বার্তা দেয়। যার পরেই ধীরে ধীরে স্বাভাবিকের পথে আন্তঃজেলা ট্রেন পরিষেবা। করোনাকালে সাধারণ যাত্রীরা ভীতি ভুলে এখন স্বাভাবিক জীবনযাপনের পথে। যে কারণে ট্রেনের চাহিদা বেড়েই চলেছে দিন দিন। আর এই চাহিদার কথা মাথায় রেখে রেল বোর্ডের তরফ থেকে ট্রেনের সংখ্যা বাড়ানো হচ্ছে।০৩০১৭/০৩০১৮ হাওড়া-আজিমগঞ্জ স্পেশাল : হাওড়া থেকে ছাড়বে প্রতিদিন সকাল ৬:০৫ মিনিটে। আজিমগঞ্জ পৌঁছাবে দুপুর ১২ টায়। আজিমগঞ্জ থেকে দুপুর ৩:৪০ মিনিটে ছেড়ে আসবে এবং হাওড়া পৌঁছাবে ৯:৪৬ মিনিটে। আগামী ১৩ই ডিসেম্বর থেকে এই ট্রেন পরিষেবা চালু হচ্ছে।০৩১১৩/০৩১১৪ কলকাতা-লালগোলা সোশ্যাল : কলকাতা থেকে ছাড়বে সকাল ৬:৪৫ মিনিটে এবং লালগোলা পৌঁছাবে দুপুর ১১:২৫ মিনিটে। লালগোলা থেকে ছাড়বে বিকাল ৪:৩৫ মিনিটে এবং কলকাতা পৌঁছাবে রাত ৯:৪০ মিনিটে। আগামী ১১ই ডিসেম্বর থেকে এই ট্রেন পুনরায় চলতে শুরু করবে।০৩১৬১/০৩১৬২ কলকাতা-বালুরঘাট স্পেশাল : কলকাতা থেকে ছাড়বে দুপুর ১২:৫৫ মিনিটে এবং বালুরঘাট পৌঁছাবে রাত ১০:১৫ মিনিটে। বালুরঘাট থেকে ছাড়বে ভোর ৫:৪৫ মিনিটে এবং কলকাতা পৌঁছাবে দুপুর ২:২০ মিনিটে।

Show More

Related Articles

Leave a Reply

Back to top button
%d bloggers like this: