Industry & Tread

অ্যামাজনের বিরুদ্ধে অভিযোগ আঙ্গুল, চিঠি গেল ইডির কাছে

দেশের ব্যবসার আইন ভঙ্গ করছে অ্যামাজন, বিপাকে মধ্যে সকল ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীরা

দেবশ্রী কয়াল : এখন বেশিরভাগ মানুষই অনলাইন করেন ব্যবসা। কিছু জিনিস কিনতে গেলে অনলাইনে সাইটে একবার ঢুঁ মেরে নেন অন্তত। বর্তমান দিনে অ্যামাজন একটি জনপ্রিয় অনলাইন শপিং অ্যাপ। তবে দেশের আইন ভাঙছে বলে অভিযোগের আঙ্গুল উঠেছে এই সাইটের বিরুদ্ধে। বৈষম্যমূলক দামে অ্যামাজন (Amazon)পণ্য বিক্রি করছে বলে ওঠে অভিযোগ, যার জেরে বিপাকে পড়েছেন দেশের ছোট ব্যবসায়ীরা। আর এই মর্মে অভিযোগ জানিয়ে অ্যামাজনের বিরুদ্ধে পদক্ষেপ নেওয়ার জন্যে ইডি-র কাছে দাবি জানাল ব্যবসায়ীদের সংগঠন কনফেডারেশন অফ অল ইন্ডিয়া ট্রেডার্স বা CAIT।

অ্যামাজন এর বিরুদ্ধে, ইডি-কে লেখা চিঠিতে ব্যবসায়ীদের এই সর্বভারতীয় সংগঠনের তরফে অভিযোগ করা হয়েছে, ২০১২ সাল থেকে ভারতে ব্যবসা শুরুর পর থেকেই নানাভাবে দেশের যাবতীয় আইন ভেঙে ব্যবসা করছে অ্যামাজন। এফডিআই, ফেমা-র মতো আইনগুলিতে দেশের ছোট ব্যবসায়ীদের স্বার্থ অক্ষুণ্ণ রাখতে যে বিধিনিষেধ রয়েছে, সেগুলিরও তোয়াক্কা করছে না অ্যামাজন। কিন্তু এই সব কিছুর পরেও কোনও ব্যবস্থা নেওয়া হয়নি তার বিরুদ্ধে। যার ফলে দেশের প্রায় ৭ কোটি ছোট ব্যবসায়ীর জীবন জীবিকা আজ বিপন্ন হতে বসেছে। শুধু এই ব্যবসায়ীরাই নন, তাঁদের সঙ্গে প্রত্যক্ষ এবং পরোক্ষ ভাবে যুক্ত অসংখ্য কর্মী এবং মানুষও প্রতারিত হচ্ছেন বলে অভিযোগ করা হয়েছে।

যদিও CAIT এর এই অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে অ্যামাজন ইন্ডিয়ার তরফে এখনও কোনো রকম প্রতিক্রিয়া বা জবাব মেলেনি। এই বিষয়ে CAIT-এর সেক্রেটারি জেনারেল প্রবীণ খান্ডেলওয়াল বলেন, ‘অ্যামাজন সেলার সার্ভিস প্রাইভেট লিমিটেড এবং বিভিন্ন বেনামি সংস্থার মাধ্যমে বাজার দখলের অসাধু চেষ্টা চালাচ্ছে অ্যামাজন, যা এফডিআই নীতি এবং ফেমা আইনের সম্পূর্ণ ভাবে বিরোধী।’ এই অবিলম্বে ইডি যাতে অ্যামাজনের থেকে সব তথ্য তলব করে, সেই দাবিও তুলেছেন CAIT-এর ওই কর্তা। এখন দেখার বিষয় ইডি কী পদক্ষেপ নেয় এখন অ্যামাজন ইন্ডিয়ার বিরুদ্ধে।

Show More

Related Articles

Leave a Reply

Back to top button
%d bloggers like this: