Big Story

ক্যান্সারের কাছে হার মানলেন যোদ্ধা, চিরতরের জন্যে বিদায় নিলেন চ্যাডউইক বোসম্যান

বাস্তবে জীবনের এক বড় যোদ্ধা ছিলেন, শেষ মুহূর্ত পর্যন্ত লড়াই চালিয়ে গেছিলেন 'ব্ল্যাক প্যান্থার'

দেবশ্রী কয়াল : বড়ই বিষময় এই ২০২০, একের পর এক কেবল দুঃসংবাদ আর বিপদের অশনি সংকেত। আর আবারও ২০২০ কেড়ে নিল এক উজ্জ্বল নক্ষত্রকে। চলতি বছরে বিনোদন জগতের অনেক অভিনেতাই হয়েছেন প্রয়াত, হয়েছে অনেক নক্ষত্র পতন। এই এবারে সবাইকে ছেড়ে চিরবিদায় নিলেন, বিশ্ব বিখ্যাত অভিনেতা চ্যাডউইক বোসম্যান। মার্ভেল সিনেম্যাটিক ইউনিভার্সের অনেকেরই বেশ প্রিয় ‘ব্ল্যাক প্যান্থার’। মারণ রোগ ক্যান্সারের কাছেই শেষ পর্যন্ত হার মানেন তিনি। দীর্ঘ ৪ বছর ধরে ক্যান্সারের সাথে লড়াই করেছেন তিনি, তবে অবশেষে গতকালই শেষ হয়ে গেল সেই জীবন যাত্রার যুদ্ধ। মৃত্যুকালে অভিনেতার বয়স হয়েছিল মাত্র ৪৩ বছর। তিনি চলে যাওয়ার পর চারিদিকে যেন ছেয়ে গেছে শোকের ছায়া।

জানা যাচ্ছে, লস অ্যাঞ্জেলসে নিজের বাড়িতেই শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেছেন অভিনেতা। সেই সময়ে বাড়িতে তার স্ত্রী টেলর সিমন লেডওয়ার্ড ও পরিবারের সকলেই তার সাথে ছিলেন। দীর্ঘ এতবছর ধরে শারীরিক অসুস্থতা নিয়ে কখনও প্রকাশ্যে কিছু জানাননি অভিনেতা। কোলন ক্যান্সারে আক্রান্ত হওয়ার পর থেকেই নিজের মধ্যেই রোগটিকে রেখে দিয়েছিলেন চ্যাডউইক। তাঁর এই অকাল প্রয়ানে কেবল হলিউডই নয়, গোটা বিশ্বেই শোকের ছায়া নেমে এসেছে। আজ সকালেই ‘ব্ল্যাক প্যান্থার ‘ অভিনেতা চ্যাডউইক বোসম্যানের টুইটার থেকেই এই দুঃসংবাদটি জানানো হয়েছে। যার পরেই ভেঙেছে বহু মানুষের মন।

চ্যাডউইক বোসম্যানের ট্যুইটারে বলা হয়েছে, ‘অত্যন্ত দুঃখের সঙ্গে জানাতে হচ্ছে চ্যাডউইক আর আমাদের বেঁচে নেই। ২০১৬ সাল থেকে দীর্ঘ ৪ বছর ধরে কোলন ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়েছিলেন অভিনেতা। স্টেজ ৪ পৌঁছে গিয়েই ৪ বছর ধরে লড়াই চালিয়ে গেছেন তিনি। সিনেমার পর্দার মতোই বাস্তব জীবনের একজন সত্যি করে যোদ্ধা ছিলেন তিনি। তার পরিচয় তার চরিত্ররাই। তবে তার মধ্যে ব্ল্যাক প্যান্থার সিনেমা তার জীবনের বড় প্রাপ্তি ‘। একটি সাক্ষাত্‍কারে চ্যাডউইক জানিয়েছিলেন ‘ব্ল্যাক প্যান্থার ‘ চরিত্রের জন্য তিনি প্রার্থনা করতেন। কারণ এটি কৃষ্ণাঙ্গদের সুপারহিরো ছিল। এছাড়াও জ্যাকি রবিনসন, জেমস ব্রাউনের মতো বহুল চর্চিত চরিত্রেও তিনি অভিনয় করেছেন। কিন্তু তিনি আজ আর নেই। রয়ে গেছে কেবল তাঁর মাস্টার পিস সিনেমা গুলি।

Tags
Show More

Related Articles

Leave a Reply

Back to top button
Close
Close
%d bloggers like this: