Nation

সংশোধনাগারে রণক্ষেত্রের ফলে অগ্নিসংযোগ,মৃত ৮ আহত ৩৭

নিজেরদের আত্মরক্ষার জন্য সংঘর্ষ বন্দিদের মধ্যেই

চৈতালি বর্মন : রবিবার এক সাংঘাতিক ঘটনা ঘটে গেল শ্রীলংকার (Sri Lanka) রাজধানী কলম্বো (Colombo) থেকে ১৫কিলোমিটার দূরে মাহারা সংশোধনাগারএ। সংশোধনাগারের কর্তৃপক্ষের সঙ্গে বন্দিদের ব্যাপক সংঘর্ষ হয় সেই সংঘর্ষে প্রাণ হারায় ৮ বন্দি। অগ্নিসংযোগ থেকে সংঘর্ষে আহত হয়েছে জেলার সহ ৩৭ জন।

সংশোধনাগার কর্তৃপক্ষ সূত্রে খবর, রবিবার রাতে সংশোধনাগারের কিছু বন্দি দরজা ভেঙে পালানোর চেষ্টা করে সেটাই চোখে পরে জেলারদের।তৎক্ষণাৎ খবর যায় উচ্চমহলে তারা বন্দিদের রোখার জন্য পুলিশ মোতায়েন করে। আর ঠিক এই কারণেই সংঘর্ষ বাঁধে। পুলিশের চোখে ধুলো দিতে বন্দিরা নিজেদের মধ্যে সংঘর্ষ তৈরী করে। তা ঠেকাতে আরো পুলিশ বাহিনী মোতায়েন করতে হয়।

রবিবার রাতে একদল বন্দি বলপূর্বক দরজা ভেঙে যখন পালানোর চেষ্টা করছিল, তখন তা কর্তৃপক্ষের নজরে চলে আসে। পরিস্থিতি সামাল দিতে বিশাল পুলিশ বাহিনী মোতায়েন করা হয়। দাবি, সেখানেই পুলিশকে ধন্ধে ফেলতে নিজেদের মধ্যে অশান্তি শুরু করে বন্দিরা। সোমবার সংবাদ সংস্থা PTI-কে দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, এ দিন রাতে বন্দিরা রান্নাঘর এবং একটি রেকর্ড রুমে আগুন ধরিয়ে দেয়। রোহানা জানিয়েছেন, ২ জেলার-সহ ৩৭ জন বন্দি এই সংঘর্ষে আহত হয়েছে। তাঁদের সকলকে নিকটবর্তী রাগামা হাসপাতালে চিকিত্‍সার জন্য ভর্তি করা হয়েছে। সেখানেই সকলের চিকিত্‍সা চলছে।

সমস্যার সূত্রপাত এটাই, যে হারে ওখানে বন্দিদের ঠাসাঠাসি করে থাকতে হয়, এই কোরোনাতে যাতে সেভাবে আর থাকতে না হয় তাই। বন্দিদের দাবি ছিল, করোনা সংক্রমণ যেভাবে বাড়ছে তাতে সংশোধনাগারে বন্দিদের সংখ্যা কিছুটা হ্রাস করা হোক। কিন্তু সে কথায় কান দেয়নি কর্তৃপক্ষ। তা নিয়েই সপ্তাহখানেক ধরে অশান্তি চলছে।

Show More

Related Articles

Leave a Reply

Back to top button
%d bloggers like this: