West Bengal

বাংলায় পুজো বন্ধ রাখতে কলকাতা হাইকোর্টে জনস্বার্থ মামলা দায়ের এক আইনজীবীর

কলকাতা হাইকোর্টে জনস্বার্থ মামলা দায়ের করেছেন সব্যসাচী চট্টোপাধ্যায় নামে এক আইনজীবী।

পল্লবী কুন্ডু : দুর্গোৎসবের পর ব্যাপক মাত্রায় বাড়তে পারে সংক্রমণের হার। কিন্তু রাজ্যে পুজো বন্ধ রাখতে নারাজ মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্ধ্যোপাধ্যায়। এমতাবস্থায়, এ বছর রাজ্যে দুর্গোপুজা বন্ধের আরজি জানিয়ে এবার মামলা দায়ের করা হল কলকাতা হাইকোর্টে। কলকাতা হাইকোর্টে জনস্বার্থ মামলা দায়ের করেছেন সব্যসাচী চট্টোপাধ্যায় নামে এক আইনজীবী। মামলাকারীর বক্তব্য, ওনাম উত্‍সবের পর কেরলের করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ব্যাপক হারে বৃদ্ধি পেয়েছে। এ রাজ্যেও যদি সাড়ম্বরে দুর্গাপুজো পালিত হল, তাহলে একইভাবে করোনা সংক্রমণের হার আরও বাড়ার সম্ভাবনা রয়েছে। বস্তুত, করোনা মোকাবিলায় মহারাষ্ট্রেও গণেশ পুজো ও মহরম নিষিদ্ধ ঘোষণা করেছে সরকার। তাহলে এ রাজ্যেইবা ব্যতিক্রম ঘটবে কেন?

চলতি পরিস্থিতিতে করোনা আবহে উচ্চমানের স্বাস্থ্যবিধি মেনে দুর্গাপুজোর অনুমতি দিয়েছেন তিনি। পাশাপাশি চিন্তার মেঘ জমছে স্বাস্থ মহলে। কারণ, এখন থেকেই রাস্তায় যে হারে জন সমুদ্র চোখে পড়ছে তাতে চিন্তা বাড়ছে পুজোর চিত্র কি হতে পারে তা কল্পনা করে। সঙ্গে পাল্লা দিয়ে বাড়ছে করোনা আক্রান্তের সংখ্যাও। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রকই শুধু নয়, সতর্কবার্তা জারি করা হয়েছে রাজ্য স্বাস্থ্য দপ্তরের তরফেও। কলকাতায় একটি বারোয়ারি পুজো উদ্বোধনের পর, সোমবার পুজো কমিটিগুলিকে করোনা বিধি মেনে চলার নির্দেশ দেন মুখ্য়মন্ত্রী।

বিপদের আশঙ্কা যখন এতটাই বেশি, তাহলে এবছর দুর্গাপুজো বন্ধ রাখলে কী ক্ষতি হত, এই প্রশ্নই উঠছে বারংবার। বাংলায় দুর্গাপুজো বন্ধের নির্দেশ জারির করার জন্য হাইকোর্টে কাছে আবেদন জানিয়েছেন মামলাকারীর আইনজীবী। বৃহস্পতিবার মামলার শুনানি হবে প্রধান বিচারপতির ডিভিশন বেঞ্চে।রাজ্যবাসীর সুরক্ষার্থেই এই আবেদন মামলাকারীর।

Show More

Related Articles

Leave a Reply

Back to top button
%d bloggers like this: