Health

সবুজ সংকেত মিললেই শুরু গণ টিকাকরণ

বড়সড় সুখবর, কো-ভ্যাক্সিন দিতে প্রস্তুত কলকাতা, জানালেন ফিরহাদ

চৈতালি বর্মন : এত দিন পর কি এবার রেহাই পেতে চলেছে মানুষ করোনার হাত থেকে ? সবার এই একই প্ৰশ্ন। সবার এই প্রশ্নের উত্তর হিসাবে আজ ৪ঠা ডিসেম্বর কলকাতা পুরনিগমের প্রধান প্রশাসক তথা রাজ্যের পুরমন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম। গত বুধবার ফিরহাদ নিজেই নাইসেডে গিয়ে কোভিডের টিকা নিয়ে এসেছিলেন। তাঁর উপরই পরীক্ষামূলকভাবে কোভ্যাক্সিন প্রয়োগ করে বৈজ্ঞানিক ট্রায়ালের সূচনা ঘটে নাইসেডে। শুক্রবার সকাল পর্যন্ত ফিরহাদ সুস্থ থাকায় ও স্বাভাবিক কাজকর্ম ঠিক ভাবে করতে পারায় ধরেই নেওয়া হচ্ছে ভ্যাকসিন তাঁর শরীরে ঠিক ভাবে কাজ করেছে।

তবে স্বাস্থ্য বিশেজ্ঞদের দাবি, এই ধরনের ভ্যাকসিন ঠিক ভাবে কাজ করছে কী করছে না তা এত তাড়াতাড়ি বোঝাই যাবে না। খুব কম পক্ষে এক বছর সময় লাগবেই এটা বুঝতে যে কোভ্যাক্সিন মানবদেহে করোনার অ্যান্টিবডি ঠিক মতন তৈরি করতে সক্ষম হচ্ছে কী হচ্ছে না। যদি দেখা যায় এই সময়ের মধ্যে ওই ব্যক্তি কোভিডে আর আক্রান্ত হচ্ছেন না তাহলে ধরে নেওয়া হবে ভ্যাকসিন কাজ দিচ্ছে। কিন্তু যদি দেখা যায় টিকা নেওয়ার পরেও তাঁর শরীরে কোভিড থাবা দিচ্ছে তাহলে ধরে নিতে হবে টিকা কাজ দিচ্ছে না। ফিরহাদ হাকিমের ক্ষেত্রেও সেই একই নীতি কার্যকর হবে। তবে টিকা নেওয়ার প্রাথমিক কোনও বিরূপ প্রতিক্রিয়া তাঁর শরীরে এখনও দেখা দেয়নি এটা অবশ্যই ভালো খবর।

প্রথম দফাতেই শহরের ৫০ লক্ষ মানুষ এই টিকা পাবেন। এমনটাই জানালেন কলকাতা পুরনিগমের প্রধান প্রশাসক তথা রাজ্যের পুরমন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম। মূলত ৫০ বছরের উর্ধ্বে যারা রয়েছেন ও ৫০ বছরের নীচে যাদের কো-মোর্বিডটি রয়েছে তাঁদেরকেই বেছে নেওয়া হয়েছে প্রথম দফার কোভিড ভ্যাকসিন নেওয়ার জন্য। ইতিমধ্যেই এর জন্য শহরের ৩০ লক্ষ মানুষের নাম নথিভুক্ত হয়ে গিয়েছে। আরও ২০ লক্ষ মানুষের নাম নথিভুক্ত করা হবে বলেই ফিরহাদ হাকিম জানিয়েছেন। কার্যত দিল্লি বা মুম্বইয়ের আগেই কলকাতার মানুষ টিকা পেয়ে যাবেন বলেই মনে করা হচ্ছে।ফিরহাদ নিজে জানিয়েছেন, তিনি যে কোভ্যাক্সিন টিকা নিয়েছেন সেই টিকাই শহরের মানুষের ওপর প্রথম দফায় প্রয়োগ করা হবে। পরবর্তী ধাপগুলিতেও যাতে এই টিকাই কলকাতার মানুষ পান তিনি সেই দিকটিও লক্ষ্য রাখবেন বলে জানিয়েছেন। তবে ঠিক কবে থেকে এই গণটিকাকরণ কর্মসূচি শুরু হবে তা নির্দিষ্ট করে তিনি জানাতে পারেননি। শুধু জানিয়েছেন, শুধু অপেক্ষা মুখ্যমন্ত্রীর গ্রিন সিগনালের, আর যেদিনই তা মিলবে সেদিনই শুরু করা হবে গন টিকাকরণ।

Show More

Related Articles

Leave a Reply

Back to top button
%d bloggers like this: