West Bengal

নতুন রূপরেখা তৈরী করতে আগামীকাল বৈঠকে জোট সংগঠনে বাম-কংগ্রেস

ভোটের লড়াইয়ে জিততে জোট বাঁধছে দুই দল, উদ্দেশ্য একটাই বাংলায় ক্ষমতায় আসা

দেবশ্রী কয়াল : ময়দানে নেমে পড়েছে সবাই, হাতে আর বেশি সময় নেই ২১শের বিধাসভার। সেরে ফেলতে হবে সকল প্রস্তুতি, বানাতে হবে নতুন রণকৌশল। বাংলায় ক্ষমতায় আসার জন্যে ইতিমধ্যেই নিজেদের মতো করে সকল প্রস্তুতি শুরু করে দিয়েছে প্রত্যেকটি রাজনৈতিক শিবির। আর এবারে বাংলায় হয়ত জোটে আসতে চলেছে বাম (Cpim)ও কংগ্রেস (Conggress)। কথা ছিল কালীপূজার পরেই, জোট বৈঠকে বসবে এই দুই দল। আর সেই মতোই বৈঠকের দিনক্ষণ ঠিক করে ফেললেন দুই শিবিরের নেতারা। জানা যাচ্ছে হয়ত আগামীকাল মঙ্গলবার, ক্রান্তি প্রেসে ২১শের ভোটে যৌথভাবে লড়াইয়ের জন্যে, নতুন রণকৌশল তৈরী করতে বৈঠকে বসবেন বিমান বসু (Biman Basu), অধীর চৌধুরিরা।

আগামী একুশে তৃণমূল-বিজেপিকে হারাতে রাজ্যে জোট গড়ে লড়বে সিপিএম, কংগ্রেস। আলিমুদ্দিনের এই প্রস্তাবে পলিটবুরো, কেন্দ্রীয় কমিটির সিলমোহর পড়ার পর পুজোর মধ্যে সপ্তমীর দিন বৈঠকে বসেছিল এই দুই শিবির। সেদিন তাঁদের মধ্যে প্রাথমিক কথাবার্তা হয়। ঠিক ছিল, কালীপুজোর পর ফের এই বিষয়ে বৈঠক হবে। জানা যাচ্ছে বৈঠকের দিনক্ষণ ঠিক করতে রবিবার রাতে প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি অধীর চৌধুরি (Adhir Ranjan Chowdhury) ফোন করেছিলেন বামফ্রন্ট চেয়ারম্যান বিমান বসু ও সিপিএম রাজ্য সম্পাদক সূর্যকান্ত মিশ্রকে (Suryakanata Mishra)। ঠিক হয়, মঙ্গলবার আরএসপি’র ক্রান্তি প্রেসে ফের দু’পক্ষ বসবেন জোট বৈঠকে।

বিহার বামেরা যেরূপ সফলতা পেয়েছে তাতে খুশি বঙ্গের কমরেডরা। সেখানে বিজেপি বিরোধী মহাজোটে লড়াই করে বেশ ভাল করেছে বামেরা। আপাতত সেটাই অনুপ্রেরণা বাংলার জন্যে। তবে বিহারে তেমন কিছু করে দেখতে পারেনি কংগ্রেস। এই চিত্র সামনে রেখে বাংলাতে জোটের শক্তিবৃদ্ধির পথে হাঁটতে চায় দু’পক্ষ। কীভাবে একসাথে এগিয়ে গিয়ে বাংলা থেকে বিজেপি (Bjp) ও তৃণমূলকে (Tmcp) প্রতিহত করা যায় সেটাই এখন তাদের লক্ষ্যের বিষয়। কাল মঙ্গলবারের বৈঠকে এসব নিয়েই আলোচনা হতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে।

Show More

Related Articles

Leave a Reply

Back to top button
%d bloggers like this: