Sports Opinion

ওয়ার্নারের চোট নিয়ে বেফাঁস মন্তব্যে ফাঁসলেন লোকেশ রাহুল

রাহুলের মন্তব্যকে ঘিরে এক প্রকার সমালোচনার ঝড় সোশ্যাল মিডিয়া জুড়ে

পল্লবী কুন্ডু : চলতি অস্ট্রেলিয়া সিরিজে (Australia series) ছন্দপতন ভারতীয় দলের। এখনো পর্যন্ত দুটি ওয়ান ডে সম্পন্ন হয়েছে। দুটি ম্যাচেই জয়ী হয়েছে অস্ট্রেলিয়া। তবে শেষ ম্যাচে খেলা চলাকালীন চোট পান ডেভিড ওয়ার্নার (David Warner)। যা দলের জন্য ক্ষতি বলেই মনে করছেন অস্ট্রেলীয় ক্রিকেট দল। তবে ওয়ার্নারের এই চোট নিয়েই এবার বেফাঁস মন্তব্য করে বসলেন রাহুল (K. L. Rahul)। যা নিয়ে ইতিমধ্যেই শুরু হয়েছে বিতর্ক।

সিরিজ হারার পরে রবিবার মিডিয়ার সামনে রাহুল আসতে প্রশ্ন করা হয়, আপনি কি শুনেছেন চোটের কারণে ওয়ার্নার সিরিজের বাইরে? ছোট ফর্ম্যাটে খেলবেন না ওয়ার্নার। টেস্টেও অনিশ্চিত। শুনে খানিকটা রসিকতার সঙ্গেই মন্তব্য করে বসেন তিনি। লোকেশ বলেন, ”এটা অবশ্যই অস্ট্রেলিয়ার কাছে ক্ষতি। তবে আমরা চাইব ও যেন তাড়াতাড়ি সুস্থ হয়ে মাঠে ফিরে না আসে। তাহলে আমাদেরই সুবিধা হবে।” এমনিতেই ভারতীয় দলে এই মুহূর্তে সিনিয়র তারকা রাহুল। তিনি বিরাট কোহলির ডেপুটিও, সেই কারণে তাঁর বক্তব্যে সংযম থাকবে, সেটাই আশা করেছিলেন সবাই। কিন্তু রাহুলের এই বক্তব্যে খানিক অবাকই হয়েছেন অনেকে।

সংশ্লিষ্ট বিষয় নিয়ে এক প্রকার সমালোচনার ঝড় ওঠে সোশ্যাল মিডিয়া জুড়ে। অনেকেই বলতে থাকেন, একজন ক্রিকেটারের চোট নিয়ে কেউ এভাবে বলতে পারেন না। কেউ কেউ এও বলেছেন, ”এটা যদি আপনার হতো, আর ওয়ার্নার এমন মন্তব্য করতেন, তা হলে আপনার কেমন লাগত?” ওয়ান ডে সিরিজ অস্ট্রেলিয়া জিতে গিয়েছে, তাই বাকি একটি ম্যাচে ওয়ার্নার না খেললেও চাপ নেই। কিন্তু টোয়েন্টি ২০ সিরিজ কিংবা টেস্টে তিনি খেলতে না পারলে দল যে সমূহ বিপদে পড়বে, সেটি জানিয়েছেন কোচ জাস্টিন ল্যাঙ্গার।

ওয়ার্নারের পরিবর্তে নেওয়া হয়েছে ডার্সি শর্টকে। ওয়েস্টার্ন অস্ট্রেলিয়ার বাঁ-হাতি ওপেনার শর্ট শেষ দু’বছর বিগ ব্যাশে সব থেকে বেশি রান করেছেন। তাই শর্টের উপর ভরসা রাখছেন ল্যাঙ্গার। পাশাপাশি বিশ্রামে পাঠানো হয়েছে প্যাট কামিন্সকে এবং জানা যাচ্ছে তিনিও টেস্টের আগে জাতীয় দলের হয়ে খেলবেন না।

অস্ট্রেলীয় তারকা ডেভিড ওয়ার্নার সেই আইপিএল থেকে দুরন্ত ফর্মে রয়েছেন। এমনকি চলতি সিরিজেও ওয়ার্নারের দুর্দান্ত ফর্মে নাকাল ভারতীয় দল। ওয়ার্নারের মতো ক্রিকেটার যে একটি দলের বড় ভরসার নাম, সেটি না বললেও চলে। আর তাই তার নামেই এরূপ মন্তব্যকে ঘিরে উঠেছে নানান বিতর্ক।

Show More

Related Articles

Leave a Reply

Back to top button
%d bloggers like this: