West Bengal

চটের বিস্তার গোডাউনে বিধংসী আগুন, তদন্ত চালাচ্ছে মেমারি থানার পুলিশ

আগুনে পুড়ে চাই হয়ে ক্ষতি হয়েছে লক্ষাধিক টাকা, সন্দেহ কেউ ইচ্ছা করেই লাগিয়েছে আগুন

দেবশ্রী কয়াল : নতুন বছরের শুরুতেই ঘটে গেল বড় দুর্ঘটনা। বিধ্বংসী আগুনের জেরে পুড়ে গেল, চটের বস্তার গোডাউন। ঘটনাটি ঘটেছে গতকাল বুধবার গভীর রাতে, পূর্ব বর্ধমান জেলার মেমারিতে (Memari)। এলাকার এক স্থানীয় ব্যক্তি প্রথমে গোডাউনে আগুনের ঝিলিক দেখতে পান। তারপর স্থানীয় লোকজনদের তিনি ডাকেন। এবং খবর দেন মেমারি থানায়। মেমারি থানার পুলিশ, দমকল ও স্থানীয় বাসিন্দাদের ঘন্টাখানেকের চেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আসে। কিন্তু ততক্ষনেই শেষ হয়ে যায় অনেক কিছুই। পুড়ে যায় গোডাউনে থাকা বেশিরভাগ সামগ্রীই। এই ঘটনায় গোডাউনের মালিকের সন্দেহ কেউ বা কারা হয়ত চটের বস্তায় লাগিয়েছে আগুন। ইতিমধ্যেই শুরু হয়েছে ঘটনার তদন্ত।

গতকাল বুধবার গভীর রাতে পূর্ব বর্ধমানের মেমারি থানার নুদিপুর মোড় এলাকায় ওই পুরনো চটের বস্তা সেলাইয়ের গোডাউনে আচমকা লাগে বিধংসী আগুন। উপস্থিত ছিল না গোডাউনের কর্মীদের কেউই। তাই কোনও প্রাণহানির ঘটনা ঘটেনি। তবে ক্ষতি হয়েছে লক্ষাধিক টাকার চটের বস্তা পুড়ে ছাই হয়ে গিয়ে। এমনটাই দাবি করেছেন গোডাউন মালিক উজ্জ্বল সাহানি।

জানা যাচ্ছে, গতকাল রাত পৌনে এগারোটা নাগাদ এক ব্যক্তি কর্মস্থল থেকে বাড়ি ফেরার সময় গোডাউনের ভেতর আগুন দেখতে পান। তৎক্ষণাৎ তিনি আশপাশের বাসিন্দাদের বিষয়টি জানান। স্থানীয় বাসিন্দারা আগুন নেভাতে উদ্যোগী হওয়ার পাশাপাশি তড়িঘড়ি করে খবর দেয় মেমারি থানায়। এরপর মেমারি থানার পুলিশ স্থানীয় বাসিন্দাদের সহায়তায় ও দমকল বাহিনীর চেষ্টায় এক ঘন্টা পর আগুন নিয়ন্ত্রণে আসে।

তবে কিভাবে হটাৎ করে গোডাউনে আগুন লাগলো তা খতিয়ে দেখছেন পুলিশ। খোঁজ করা হচ্ছে ওই গোডাউন মালিকের সঙ্গে কারও কোনও শত্রূতা ছিল কিনা, প্রতিহিংসা থেকেই কেউ আগুন লাগিয়েছিল কিনা তা জানার চেষ্টা চলছে। গোডাউন মালিকের সঙ্গে এ ব্যাপারে বিস্তারিতভাবে কথা বলা হবে।

Show More

Related Articles

Leave a Reply

Back to top button
%d bloggers like this: