Big Story

” হয় এস্পার নয় ওস্পার “- আদালতের সামনেই মেয়ের ধর্ষককে গুলি করলো তার বাবা

মাস দুয়েক আগেই জামিনে মুক্তি পেয়েছিল দিলশাদ

তিয়াসা মিত্র : তাহলে কি সত্যি ভারতের আইনের ওপর থেকে আস্থা হারাচ্ছে মানুষ? এক বাবা মরিয়া হয়ে উঠেছিল তার মেয়ের ধর্ষককে ফাঁসির দড়িতে ঝোলাতে , কিন্তু যখন হিতে বিপরীত হলো, তাকে যখন জামিন দেওয়া হলো সেটি আর নিতে পারেননি উত্তর প্রদেশের প্রাক্তন বিএসএফ অফিসার ভগবত নিশাদ। সঙ্গ দেয় তারই ছেলে নন্দলাল।

মৃতের নাম দিলশাদ হুসেন (২৫)। তিনি বিহারের মুজফফরপুরের বাসিন্দা। মাস দুয়েক আগে জামিন পেয়েছিলেন দিলশাদ। অপহরণ এবং ধর্ষণের মামলায় ফের শুক্রবার গোরক্ষপুর আদালতে এসেছিলেন তিনি।পুলিশ সূত্রে খবর, আদালতের গেটের সামনে আইনজীবীর জন্য অপেক্ষা করছিলেন দিলশাদ। তখন দুপুর সওয়া একটা। দিলশাদের আইনজীবী আসার আগেই সেখানে পৌঁছন প্রাক্তন বিএসএফ জওয়ান ভগবত নিশাদ এবং তাঁর ছেলে নন্দলাল। অভিযোগ, এর পরই নিজের লাইসেন্স করা বন্দুক থেকে দিলশাদের মাথা লক্ষ্য করে গুলি করেন ভগবত। ঘটনাস্থলেই লুটিয়ে পড়েন দিলশাদ। এই ঘটনায় আদালত চত্বরে আতঙ্ক ছড়ায়। তারপর সেখান থেকে চলে যান বাবা এবং ছেলে।

ঘটনাটি ছিল, ২০২০-র ১২ ফেব্রুয়ারি ভগবতের নাবালিকা মেয়েকে অপহরণ এবং ধর্ষণের অভিযোগ ওঠে দিলশাদের বিরুদ্ধে। ২০২১-এর ১২ মার্চ হায়দরাবাদ থেকে দিলশাদকে গ্রেফতার করে পুলিশ। উদ্ধার করা হয় ভগবতের মেয়েকে। তার পরই দিলশাদকে জেল হেফাজতে পাঠানো হয়। মাস দুয়েক আগেই জামিনে মুক্তি পেয়েছিল সে।

Show More

OpinionTimes

Bangla news online portal.

Related Articles

Leave a Reply

Back to top button
%d bloggers like this: