Nation

বিভ্রান্তিমূলক তথ্য ছড়াচ্ছে ট্রাম্পের পোস্ট, ফেসবুক, টুইটার ডিলিট করল পোস্ট

করোনাকে ভয় পেতে বারণ করছে ট্রাম্প, জনসম্মুখেই খুলে ফেলল মুখের মাস্ক

দেবশ্রী কয়াল : সোশ্যাল মিডিয়ায় বারবার অভিযোগ উঠেছে ভুঁয়ো পোস্ট বা বিভ্রান্তিমূলক পোস্টের বিরুদ্ধে। আর এবারে ফেসবুক ও টুইটার থেকে সরিয়ে দেওয়া হল
মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের পোস্ট। তাঁর বিরুদ্ধে অভিযোগ, করোনা ভাইরাস সক্রান্ত বিভ্রান্তি ছড়াচ্ছিল তাঁর পোস্ট। মার্কিন প্রেসিডেন্ট দাবি করেছিলেন, করোনা সাধারণ ফ্লুয়ের মতোই একটি অসুখ। এরপর ওই পোস্টটি ২৬ হাজার শেয়ার হয় ফেসবুকে। এরপর সেটি দ্রুত সরিয়ে নেওয়া হয় ফেসবুক থেকে। সংস্থার এক মুখপাত্র এক সংবাদসংস্থা জানিয়েছেন, ”কোভিড-১৯ সংক্রান্ত ভুল তথ্য থাকলে তা আমরা সরিয়ে দিই প্ল্যার্টফর্ম থেকে।”

ফেসবুকের পাশাপাশি একইভাবে ট্রাম্পের টুইটটিও মুছে দেওয়া হয়েছে। টুইটার কর্তৃপক্ষ জানিয়ে দিয়েছে, কোভিড-১৯ সম্পর্কিত বিভ্রান্তিকর এবং সম্ভাব্য ক্ষতিকারক তথ্য ছড়াচ্ছিল ট্রাম্পের ওই টুইটে। তাই সেটিকে সরানো হচ্ছে। সোমবারই তিনদিনের মধ্যে করোনা আক্রান্ত ট্রাম্প হাসপাতাল থেকে ফিরে আসেন। তারপর জনসমক্ষে নিজের মুখের মাস্ক টান মেরে খুলে ফেলে তিনি সকলের উদ্দেশে জানান, করোনাকে ভয় পাওয়ার কিছু নেই। সেটি আর পাঁচটা অসুখের মতোই।

এখনও পর্যন্ত আমেরিকায় মারণ করোনা আক্রান্ত হয়ে ২ লক্ষ ১০ হাজার মানুষ মারা গিয়েছেন। যা গোটা বিশ্বের মধ্যে সর্বোচ্চ। এই সঙ্কটময় পরিস্থিতিতে স্বয়ং প্রেসিডেন্টের এমন আচরণকে সমালোচনা করেছেন অনেকেই। ‘আমেরিকান প্রোগ্রেস থিঙ্ক ট্যাঙ্ক’-এর সভাপতি নীরা ট্যান্ডন জানাচ্ছেন, ”কোনও মানুষের এমন স্বার্থপরতা আমি কল্পনাও করতে পারি না। মার্কিন প্রেসিডেন্ট, যাঁর কিনা সকলকে রক্ষা করার কথা তিনিই কিন্তু একেবারে বিপরীত কাজ করছেন। নিজের আশপাশের মানুষের জীবনকে পর্যন্ত বিপন্ন করে তুলছেন।”

Show More

Related Articles

Leave a Reply

Back to top button
%d bloggers like this: