Nation

গাধার মল, ভুষি, অ্যাসিড দিয়ে তৈরি গুঁড়ো মশলা! কারবার চলছে যোগীর রাজ্যে

ভেজালহীন মশলার তৈরির নাম করে চলছে ভেজাল মশলার কারবারি

চৈতালি বর্মন : এই সময় মানুষকে সুস্থ্য ও শারীরিকভাবে ফিট থাকার জন্য ভেজালহীন খাওয়া দাওয়া করা উচিত। তবে তা অবশ্য ভারতের মতো দেশে করা একেবারেই সম্ভব নয়। মঙ্গলবার উত্তরপ্রদেশের হাথরাস জেলায় পুলিশ একটি মশলা তৈরির কারখানায় অভিযান চালায়। পুলিশের কাছে খবর ছিল যে এই কোম্পানি খারাপ উপাদান দিয়ে ভেজাল মশলা তৈরি করছে।তৈরি হচ্ছে গুঁড়ো মশলা। জিরে, ধনে, শুকনো লঙ্কার গুঁড়ো প্যাকেটবন্দি হয়ে চলে যাচ্ছে বাজারে। কিন্তু সেই গুঁড়ো মশলা কী দিয়ে তৈরি হচ্ছিল জানেন? গাধার মল, অ্যাসিড, কৃত্রিম রঙের মতো বিষাক্ত পদার্থ দিয়ে। বাজেয়াপ্ত হয়েছে প্রায় ৩০০ কেজি গুঁড়ো মশলা। গ্রেফতার কারখানার মালিক অনুপ ভারসেনি। পুলিশ সূত্রে খবর, দীর্ঘদিন ধরেই এই ভেজালের কারবার চালিয়ে আসছিলেন অনুপ। তিনি আবার ‘হিন্দু যুব বাহিনী’ নামে একটি সংগঠনের স্থানীয় নেতা। ২০০২ সালে এই বাহিনী গঠন করেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ (Yogi Adityanath)।

পুলিশ জানিয়েছে, গোপন সূত্রে খবর পেয়ে হাথরসের নবিপুর এলাকার ওই কারখানাটিতে গভীর রাতে অভিযান চালায় উত্তরপ্রদেশ(Uttar Pradesh)পুলিশের একটি বিশেষ দল। তখনও ওই সব ভেজাল মশলা তৈরি হচ্ছিল। উদ্ধার হয় লঙ্কা, ধনে, গরম মশলা, হলুদের মতো গুঁড়ো মশলা। সেগুলি তৈরি হচ্ছিল গাধার মল, রাসায়নিক রঙ, অ্যাসিডের মতো বিষাক্ত পদার্থ দিয়ে। প্রায় ৩০০ কেজি মশলার মধ্যে থেকে ২৭টি নমুনা পরীক্ষার জন্য পাঠিয়েছে পুলিশ। অন্য দিকে অনুপকে আদালতে তোলা হলে বিচারবিভাগীয় হেফাজতে পাঠানোর নির্দেশ দেন বিচারক। পুলিশ জানিয়েছে, খাদ্য নিরাপত্তা ও গুণমান আইনে মামলা দায়ের হয়েছে অনুপের বিরুদ্ধে।

একই ধরনের ঘটনা ঘটেছে বস্তিতেও। উত্তরপ্রদেশের স্পেশাল টাস্ক ফোর্স ভারতীয় রেলের তত্‍কাল টিকিট বিক্রির ভুয়ো চক্র ফাঁস করে দিয়েছে এবং এই ঘটনার মাস্টারমাইন্ডকে গ্রেপ্তারও করে নিয়েছে। পুলিশ ২৪৫টি রেল টিকিট সহ আগে ব্যবহৃত হয়েছে এরকম ২৪৩টি তত্‍কাল টিকিট, মোবাইল ফোন, ২টি ল্যাপটপ ও কিছু নথি বাজেয়াপ্ত করেছে।

Show More

Related Articles

Leave a Reply

Back to top button
%d bloggers like this: