West Bengal

পরিস্থিতি সুস্থ হলে তবেই সম্ভব ৪৫তম কলকাতা আন্তর্জাতিক পুস্তক মেলা, জানালো কর্তৃপক্ষ

করোনা পরিস্থিতির জেরে এখনই আয়োজিত হচ্ছে না বইমেলা, আনুষ্ঠানিকভাবে এই ঘোষণা করলেন বইমেলার আয়োজক পাবলিশার্স অ্যান্ড বুক সেলার্স গিল্ডের সাধারণ সম্পাদক সুধাংশুশেখর দে।

পল্লবী কুন্ডু : অতিমারী করোনা দাঁড়ি টেনেছে একাধিক ক্ষেত্রে। আর এবার পরিস্থিতির জেরে এখনই আয়োজিত হচ্ছে না ৪৫তম কলকাতা আন্তর্জাতিক পুস্তক মেলা(Kolkata International Book Fair)। আনুষ্ঠানিকভাবে এই ঘোষণা করলেন বইমেলার আয়োজক পাবলিশার্স অ্যান্ড বুক সেলার্স গিল্ডের সাধারণ সম্পাদক সুধাংশুশেখর দে। তবে পাশাপাশি তিনি এ কথাও জানিয়েছেন যে, পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে তবেই এই মেলার আয়োজন করা হবে। অন্যদিকে, বইমেলা কর্তৃপক্ষ জানিয়েছেন, আপাতত তাঁরা চাইছেন যে করোনা পরিস্থিতি কেটে গেলে সুস্থ পরিবেশেই বইমেলা সম্পন্ন হবে। করোনার প্রকোপ কিছুটা কমলে বইমেলা আয়োজন করা হতে পারে। আর তার জন্য কিছু দিন অপেক্ষা করতে হবে।

বইমেলার আয়োজক পাবলিশার্স অ্যান্ড বুক সেলার্স গিল্ডের সাধারণ সম্পাদক সুধাংশুশেখর দে জানাচ্ছেন,”অতিমারির কারণে অনলাইনে আয়োজিত হয়েছে ফ্র্যাঙ্কফুর্ট আন্তর্জাতিক বইমেলা। প্যারিস বইমেলা এবং লন্ডন বইমেলা পিছিয়ে গিয়েছে। পিছিয়েছে দিল্লি বইমেলাও। বিদেশের সব জায়গা থেকে বিমান এখন চলছে না। তাই কলকাতা বইমেলায় বিদেশি অতিথিরা আসবেন কী ভাবে? এ বারের বইমেলার ‘থিম কান্ট্রি’ বাংলাদেশের অতিথিদেরও এই পরিস্থিতিতে আসা সম্ভব নয়।”

অন্যদিকে, পাবলিশার্স অ্যান্ড বুক সেলার্স গিল্ডের সভাপতি ত্রিদিবকুমার চট্টোপাধ্যায় বলেন, ‘‌লক্ষ লক্ষ মানুষের জীবন-মরণের প্রশ্ন যেখানে জড়িত সেখানে এত বড় উত্‍সব করা উচিত হবে না। মেলা প্রাঙ্গনে এককালীন ১০০ জন করে প্রবেশ করানো বা ৭৫০ স্টলের মধ্যে কোনও স্টলের ভেতরে লোকজন ঢুকতে পারবে না, সেলফি নিতে পারবে না এ সব করা সম্ভব নয়, অবাস্তব।’‌

সাধারণের সুরক্ষার কথা চিন্তা করে এবার বেশ কিছুটা অপেক্ষা করতে হবে বই প্রেমীদের। তবে পরিস্থিতি সুস্থ হলেই সম্পন্ন হবে ২০২১ এর কলকাতা বইমেলা।

Show More

Related Articles

Leave a Reply

Back to top button
%d bloggers like this: