Culture

মানবসেবার সূচনা, ‘লোকহিতে’ মানবিক উদ্যোগ কলকাতার পুজো কমিটিরা

করোনা মোকাবিলায় অভিনব উদ্যোগ উত্তর কলকাতার নামজাদা পুজো কমিটি টালা পার্ক

রাখি সিংহ : দুর্গাপুজো কীভাবে হবে তা নিয়ে সংশয়ে কলকাতার পুজো উদ্যোক্তারা। তবে অনেকের মতে, এবারের পুজো মানবিকতার, দায়বদ্ধতার। আর সেই মানবিকতার খাতিরেই দুর্গাপুজোকে মাথায় রেখে বিভিন্ন সামাজিক কর্মকাণ্ডের মাধ্যমে এগিয়ে এসেছে কলকাতার বহু পুজো কমিটি। বিষয়টি ঠিক কী? টালা পার্ক প্রত্যয়ের গত বছরের থিম ‘কল্পলোক’ গোটা কলকাতায় সাড়া জাগিয়েছিল। কিন্তু এবারের পরিস্থিতি আলাদা। দুর্গাপুজোয় করোনা কাঁটা। তাই এবার ‘লোকহিত’ ভাবনার মধ্যে দিয়ে সমাজের লোকহিতকর কাজকর্মগুলিকে তুলে ধরবে টালা পার্ক প্রত্যয়।

লোকহিতে করোনা মোকাবিলায় স্যানিটেশন ভেহিকল বা জীবাণুনাশক গাড়ি চালু করল টালা পার্ক প্রত্যয়। তবে এদিনের এই উদ্যোগ ছিল একটু অভিনব। স্যানিটেশন ভেহিকলের পিছনে প্রতিমার চক্ষুর রেপ্লিকায় চক্ষুদান করলেন এবারের থিমশিল্পী সুশান্ত পাল। চক্ষুদানের পর যাত্রা শুরু হল এই গাড়ির। ক্লাবের নিজস্ব উদ্যোগে তৈরি এই গাড়ি গোটা কলকাতার বিভিন্ন জায়গায় করোনা মোকাবিলায় জীবাণুমুক্তকরণের কাজ করবে।

পুজোর অন্যতম উদ্যোক্তা চিরঞ্জীব চট্টোপাধ্যায় জানিয়েছেন, “এবারের আমাদের পুজোর মূল উদ্দেশ্য হল লোকহিত। আর তার জন্য করোনা পর্বে আমরা মানব সেবায় নিয়োজিত হয়েছি। এই স্যানিটেশন গাড়ি গোটা কলকাতায় যে কোনও জায়গায় অন কলে জীবাণুনাশকের কাজ করবে। সংকটের সময়ে মানবসেবাই হল পরম ধর্ম।” শিল্পী সুশান্ত পালের ভাবনায় গত বছর ‘কল্পলোকে’ বিভোর হয়েছিল পুজোপ্রেমী মানুষ। এবার করোনা পরিস্থিতিতে লোকহিতকর ভাবনার মধ্যে দিয়ে অন্যরকম পুজো দেখাবেন শিল্পী। তাঁর কথায়, “এবারের পরিস্থিতি অন্যরকম। মানবতার উৎসবের মধ্যে দিয়ে লোকহিতকর কাজ মানুষের কাছে তুলে ধরতে হবে। মানুষের কাছে ভাবনা নিয়ে পৌঁছতে হবে।” সেই কারণেই করোনা মোকাবিলায় মানবসেবার মধ্যে দিয়ে উৎসবের যৌক্তিকতাকে তুলে ধরার চেষ্টা করছে এবার টালা পার্ক প্রত্যয়।

Show More

Related Articles

Leave a Reply

Back to top button
%d bloggers like this: