West Bengal

পূজাতেও ই-পাস, সুরক্ষার উপর বিশেষ নজর

ইতিমধ্যে বাড়ছে ভিড়, পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে নয়া পদক্ষেপ ডিজিটালি

দেবশ্রী কয়াল : দেবীপক্ষের সূচনা হয়ে গেছে, আজ তৃতীয়া। আর এর মধ্যেই মন্ডপ গুলোতে মানুষের ভিড় জমতে শুরু করে দিয়েছে। কিন্তু এই বৎসর ভিড় করা যে নিষেধ। তাই বর্তমান করোনা পরিস্থিতিতে, পূজা মন্ডপ গুলিতে ভিড় কমানোর উদ্দেশ্যে এবার ই-পাস(E-Pass) ব্যবস্থা চালু করা হলো। কলকাতার(Kolkata) প্রথম সারির সব বারোয়ারি পুজোর মঞ্চ, ফোরাম ফর দুর্গোত্‍সবের(Forum For Durgotsav) তরফে এই ধরনের নির্দিষ্ট সময়ের ই-পাসের বন্দোবস্ত করা হয়েছে। পূজাইপাস.ইন (pujaepass.in) বলে একটি ওয়েবসাইট ও পূজা ই-পাস নামক অ্যাপে পাওয়া যাবে প্রতিমা দর্শনের জন্য এই ই-পাস।

অ্যান্ড্রয়েড ও আইফোন এই দু’ধরনের স্মার্টফোনেই পাওয়া যাবে এই ই-পাস অ্যাপটি। এই পাসের মাধ্যমে কলকাতা শহরের ৪১টি বড় পুজো দেখার সুযোগ থাকবে বলে জানা যাচ্ছে। পঞ্চমী থেকে নবমীর মধ্যে যে কোনও এক দিন ঠাকুর দেখার নির্দিষ্ট সময় বেছে নেওয়া যেতে পারে এই ই-পাসের মাধ্যমে। এই ই-পাস পেতে গেলে, দর্শনার্থীকে নিজের নাম ও ইমেল আইডি দিয়ে প্রথমে পরিচয় নথিভুক্ত করতে হবে। সংশ্লিষ্ট ওই ব্যক্তির ফোনে কিউআর কোড হিসেবে সেই পাসগুলি থাকবে। মণ্ডপে গিয়ে ফোন থেকে সেই ই-পাস দেখিয়ে তবেই প্রতিমা দর্শন করা যাবে। দিনের যে কোনও সময়েই সীমিত সংখ্যায় এই ই-পাস পাওয়া যাবে।

জানা যাচ্ছে একজন ব্যক্তি একসাথে ২০ জনকে একসঙ্গে নিয়ে মণ্ডপে ঢুকতে পারবেন এই ই-পাসের মাধ্যমে। এই ই-পাসের মাধ্যমে কে, কখন ঠাকুর দেখতে যাচ্ছেন, তা আগে থেকে জানা গেলে মণ্ডপে ভিড়েরও একটা হিসেব পাওয়া যাবে আগে থেকেই। তার ফলে, পুজো মণ্ডপে নিরাপত্তা বিধিও বজায় রাখার সুবিধা হবে বলে মনে করছেন পুজোর উদ্যোক্তারা। বর্তমান পরিস্থিতিতে মানুষের সুরক্ষা সবথেকে বেশি গুরুত্বপূর্ণ, আর এই ই-পাসের জেরে সেই দিকে বেশি ভালো করে নজর রাখা যাবে বলে আশা করা যাচ্ছে।

Show More

Related Articles

Leave a Reply

Back to top button
%d bloggers like this: