Youth

দুর্গা পূজা নিয়ে ভুঁয়ো খবর সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে গ্রেফতার দুই যুবক

আগেই সাবধান করেছিল কলকাতা পুলিশ, পরে তোপ দাগেন মুখ্যমন্ত্রী

দেবশ্রী কয়াল : গত কয়েকদিন ধরেই সোশ্যাল মিডিয়াতে দুর্গা পূজা নিয়ে চড়াচ্ছিল একটি গুজব। তার পরেই রাজ্য সরকার এবং কলকাতা পুলিশের তরফে জানানো হয়, এই তথ্য পুরোপুরি গুজব ছাড়া কিছু না, এবং কাউকেই সেই গুজব ফরোয়ার্ড করতে বারণ করেন। এরপরেই শুরু হয় ঘটনার পিছনে থাকা অভিযুক্তের খোঁজ। আর এবারে এই অপরাধের কারনে ২ যুবককে গ্রেপ্তার করল বরাহনগর ও ঘোলা থানার পুলিশ। তাঁদের বিরুদ্ধে তথ্য প্রযুক্তি আইনে এবং ভুয়ো খবর ছড়ানো মামলা রুজু করা হয়েছে। ধৃতদের মধ্যে একজনকে আজই আদালতে পেশ করা হয়েছিল।

সম্প্রতি হোয়াটসঅ্যাপে এবং ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়ে এক গুজব। সেখানে বলা হয় এবছর পুজোয় সারারাত ঘুরে প্রতিমা দর্শন বন্ধ। পঞ্চমী থেকে একাদশী পর্যন্ত বিকেল পাঁচটার পর থেকে সারা রাজ্য জুড়ে জারি থাকবে নাইট কারফিউ। মন্ডপে প্রবেশ নিষেধ একসাথে ৫ জনের বেশি এবং প্রত্যেক দর্শনার্থীর হবে থার্মাল। অষ্টমীর অঞ্জলিতে ফুল দেওয়া যাবে না। খেলা যাবে না সিঁদুর খেলা, প্রতিমা নিরঞ্জনের সময় শোভাযাত্রা বন্ধ রাখার কথাও উল্লেখ রয়েছে ওই ভুয়ো মেসেজে। এই বিষয়টি প্রকাশ্যে আসতেই কলকাতা পুলিশের তরফে টুইটে জানানো হয় বিষয়টি সম্পূর্ণ ভুয়ো। তৎপরতার শুরু হয় অভিযুক্তদের খোঁজ। এরপরই রাজু বিশ্বাস নামে এক যুবককে গ্রেপ্তার করে ঘোলা থানার পুলিশ। তারপর প্রভুজিত্‍ আচার্য্য নামে আরেকজনকে গ্রেপ্তার করে বরাহনগর থানার পুলিশ।

এই গোটা ঘটনাটি জানতে পেরে মঙ্গলবারই নাম না করে বিজেপির আইটি সেলকে তোপ দেগেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি বলেন, ‘এ কাজ কে করেছে সবাই জানে। নাম আর বলব না। যারা দুর্গাপুজো জীবনে করেনি তারাই পুজো নিয়ে ফেক নিউজ ছড়াচ্ছে। যারা এই ভুয়ো মেসেজ ছড়িয়েছে তাদের কান ধরে ওঠবোস করানো হবে। তিনি আরও কটাক্ষের সুরে বলেন, অহংকারী দল ,পাষণ্ডের দল, নির্লজ্জ, শোষণের দল। সরকার কোনো মিটিংই করেনি। পুজো নিয়ে সরকার এ ধরনের কোনও সিদ্ধান্ত নিয়েছে এটা প্রমাণ করতে পারলে আমি সবার সামনে ওঠবোস করব।’ আর এরপরেই গ্রেফতার হয় এই ঘটনার পিছনে থাকা দুই অভিযুক্ত যুবক।

Tags
Show More

Related Articles

Leave a Reply

Back to top button
Close
Close
%d bloggers like this: