Environment

সবুজ বাঁচানোর লক্ষ্যে সাধারণের পাশে DYFI

গতকাল DYFI বেহালা পূর্ব ২ এরিয়া কমিটি কংক্রিটের শহরকে সবুজের প্রাণ প্রদানের এক মহৎ চেষ্টায় সামিল হয়।

পল্লবী কুন্ডু : আজকের কলের কলকাতায় সত্যিই কোথায় যেন সমস্ত সবুজ হারিয়ে যাচ্ছে। প্রথমত ব্যাস্ততম শহরে ধোঁয়া-ধোলায় ভরা পরিবেশে প্রাণ ওষ্ঠাগত ছিল সবুজের। আর তার মধ্যেই এবার দোসর ছিল আমপান। কলকাতার বুক থেকে হাজার হাজার গাছ নিশ্চিহ হয়ে গেছে ভয়ংকর ঘূর্ণিঝড়ের তান্ডবে। আর তাই এবার অরণ্য সপ্তাহে মহানগরীকে নতুন করে সবুজায়নের লক্ষে এগিয়ে আসলো ডিওয়াইএফআই। এদিন তারা কমবেশি ৪০ জন মানুষের হাতে ছোট গাছের চারা তুলে দিতে সক্ষম হয়েছেন।

গতকাল DYFI বেহালা পূর্ব ২ এরিয়া কমিটি কংক্রিটের শহরকে সবুজের প্রাণ প্রদানের এক মহৎ চেষ্টায় সামিল হয়। সারা কলকাতা জুড়েই তাদের এই কর্মপ্রয়াস তারা চালাচ্ছেন। নানান রকম গাছের চারা তারা তুলে দিচ্ছেন সাধারণ মানুষের হাতে। গতকাল বেহালা পূর্ব ২ এরিয়া কমিটি ১২০ নং. ওয়ার্ডে নফরচন্দ্র দাস রোড বেহালা ত্রিশক্তি ক্লাবের সামনেই অনুষ্ঠিত হয় এই অনুষ্ঠান। ৪০ জন মানুষের হাতে তুলে দিয়েছেন গাছের চারা। পাশাপাশি তাদের সহযোগিতায় ছিল পশ্চিমবঙ্গ বিজ্ঞান মঞ্চ। বেহালা বিজ্ঞান কেন্দ্র এগিয়ে এসেছে এই কাজে এবং বিজ্ঞান মঞ্চের পক্ষ থেকে চলতি সময়ের কথা মাথায় রেখেই তারা মাস্ক প্রদান করেছেন। সাধারণ মানুষের হাতে তারা এই মাস্ক বিনা মূল্যে তুলে দিয়েছেন।

গতকালের এই অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন, DYFI-এর বেহালা পূর্ব ২ এর সম্পাদক সমর প্রামানিক, এরিয়া কমিটির অন্যতম সদস্য সঞ্জয় খান, অরুনাভ কর্মকার এবং বিজ্ঞান মঞ্চের পক্ষ থেকে ছিলেন বেহালা বিজ্ঞান কেন্দ্রের সম্পাদক উজ্জ্বল সিংহ রায়, অন্যতম সদস্য দিলীপ দত্ত গুপ্ত। এছাড়াও ছিলেন প্রাক্তন যুব নেতৃত্ব প্রসেনজিৎ সেনগুপ্ত এবং গৌতম অধিকারী ও ঝুমা সেনগুপ্ত। এছাড়াও বেহালা ত্রিশক্তি সংঘের সদস্যরা।

এছাড়াও যে বিষয়টি কিছুটা ভিন্ন তা হল যাদেরকেই গাছ প্রদান করা হয়েছে তাদের হাতে একটি করে গ্রিন গার্ডিয়ান কার্ড তারা দিয়েছেন। অর্থাৎ যে গাছটি দেওয়া হয়েছে সেই গাছটিকে সবসময় দেখা শোনা করার দায়িত্ব তাদের থাকবে। একজন অভিভাবকের মতো গাছটিকে সন্তানের ন্যায় লালন পালন করার দায়িত্ব তার থাকবে। আগামী প্রজন্মের জন্য যা চিহ্ন হয়ে থাকবে। কলকাতা যে কংক্রিটের শহরে পরিণত হয়েছে তাতে আবারো নতুন করে সবুজের সঞ্চারণ করার দায়িত্বে সাধারণের পাশে এবার DYFI।

Tags
Show More

Related Articles

Back to top button
Close
Close
%d bloggers like this: