Sports Opinion

এতদিন ম্যাচ হারলে নানান খারাপ মন্তব্য শুনতে হয়েছে কার্তিক-কে, তাহলে কাল কেন হারলো দল ?

হটাৎ করেই দলের এই পরিবর্তন-এ একেবারেই খুশি নন নাইটদের প্রাক্তন তথা সেরা অধিনায়ক গৌতম গম্ভীর।

পল্লবী কুন্ডু : চলতি মরশুমের মাঝপথেই বদলে ফেলা হয় কেকেআর(Kolkata Knight Riders)-এর অধিনায়কত্ব। অবশ্য প্রাক্তন অধিনায়ক দীনেশ কার্তিক জানিয়েছেন তিনি আপাতত তার ব্যাটিং-এ মন দিতে চান আর তাই-ই অধিনায়ক পদ থেকে অবসর নিচ্ছেন। তবে হটাৎ করেই দলের এই পরিবর্তন-এ একেবারেই খুশি নন নাইটদের প্রাক্তন তথা সেরা অধিনায়ক গৌতম গম্ভীর। তাঁর মতে, এভাবে টুর্নামেন্টের মাঝপথে অধিনায়ক বদলের কোনও অর্থই হয় না। অধিনায়ক বদলালেও চলতি টুর্নামেন্টে অন্তত কেকেআরের ভাগ্য বদলাবে না। পারফরম্যান্সের দিক থেকে কিছুই পালটাবে না।

গতকাল মুম্বাই-এর বিপরীতে নামে কলকাতা। মর্গ্যানের নেতৃত্বে কাল-ই ছিল প্রথম ম্যাচ। কিন্তু অধিনায়ক পরিবর্তনের পরেও চূড়ান্তভাবে পরাজিত হয় কলকাতা। অধিনায়ক বদলালেও নাইটদের ভাগ্য বিন্দুমাত্র বদলায়নি। সংশ্লিষ্ট বিষয়কে লক্ষ্য করেই গম্ভীর বলছেন,’ক্রিকেট সম্পর্কের খেলা নয়, এটা পারফরম্যান্সের খেলা। আমার মনে হয় না মর্গ্যান কলকাতার দলে কিছু বদলাতে পারবে। হ্যাঁ ও যদি মরশুমের শুরু থেকে অধিনায়কত্ব করত, ও অনেক কিছু পালটাতে পারত। এভাবে টুর্নামেন্টের মাঝপথে কেউ অধিনায়ক পালটায় না।’

গম্ভীর আরো বলেন, ‘কার্তিক গত আড়াই বছর ধরে নাইটদের ক্যাপ্টেন ছিলেন। তাঁকে মাঝপথে সরিয়ে দেওয়া হল। আমি একটু অবাকই হয়েছি। কেকেআর অতটাও খারাপ জায়গায় ছিল না যে তোমাকে ক্যাপ্টেনই বদলে ফেলতে হবে।’ নাইট ম্যানেজমেন্টের সমালোচনা করে প্রাক্তন অধিনায়ক বলছেন,’অনেকেই শুনছি বলছে, মর্গ্যানের মতো বিশ্বজয়ী অধিনায়ক দলে থাকায় কার্তিকের উপর চাপ পড়ছিল। আমার কথা হল, তাহলে মরশুমের শুরুতেই কেন সরাসরি মর্গ্যানকে দায়িত্ব দেওয়া হল না? এতদিন কেন কার্তিকের উপর চাপ দেওয়া হল?’ গম্ভীর মনে করছেন, স্বেচ্ছায় নয়, ম্যানেজমেন্টের ইশারাতেই অধিনায়কত্ব ছেড়েছেন কার্তিক। তিনি বলছেন,’ কেউ যখন বলে আমি অধিনায়কত্ব ছেড়ে ব্যাটিংয়ে মন দিতে চায়, সেটা শুনতে খুব ভাল লাগে। কিন্তু সত্যিটা হল, টিম ম্যানেজমেন্ট আগে থেকেই ইশারা করা শুরু করে দেয়।’

মর্গ্যানের নেতৃত্বে মুম্বইয়ের কাছে সেই আগের মতোই লজ্জাজনকভাবে হারতে হয়েছে কলকাতাকে। দলের অন্দরেই যে একটা ব্যর্থতা কাজ করছে, তা আবারো কেকেআরের পারফরম্যান্সে স্পষ্ট। এর আগে যখনই কলকাতা হেরেছে তখনি নানান রকম বাজে মন্তব্য থেকে শুরু করে নানান রকম ট্রোলিং-এর শিকার হয়েছেন কার্তিক। তারপর যখন অধিনায়কত্বই পুরো বদলে যায় তখনও ফল একই। তাহলে কি সত্যিই দোষটা কার্তিকের ছিল নাকি গোটা দলের ? তবে এরপর দল কি আবারো ঘুরে দাঁড়াতে সক্ষম হবে ? তা একমাত্র বলতে সক্ষম হবে পরবর্তী ম্যাচ।

Show More

Related Articles

Leave a Reply

Back to top button
%d bloggers like this: