Life Style

আপনার পর্যালোচনাকে বাঁচিয়ে রাখতে যত্ন নিন ‘লোচনের’

বর্তমান যুগে আপনি যেমন প্রযুক্তি নির্ভর, ঠিক তেমনি আপনার শরীর চোখ নির্ভর : চোখের যত্ন নিন

পল্লবী কুন্ডু : বর্তমানে সকল মানুষ নিজ নিজ কর্মক্ষত্রে অত্যন্ত ব্যস্ত হয়ে পড়েছেন। আর বেশির ভাগ ক্ষেত্রেই দেখা যায় কর্ম মাধ্যম হলো প্রযুক্তি অর্থ্যাৎ ল্যাপটপ বা ডেস্কটপ-এ। আর কাজ বাদে অবসর সময় টুকু ব্যস্ত নিজের স্মার্টফোন নিয়ে। ফলে এই সব ধকল টাই সহ্য করতে হয় আমাদের চোখ (Eye)-কে। কিন্তু ব্যস্ততার ফাঁকে সেই চোখের-ই আলাদা ভাবে কোনো যত্ন নিয়ে ওঠা হয়না। কিন্তু যাতে আপনাকে বাড়তি দুটি চোখের সাহায্য নিয়ে চলতে না হয় তার জন্য অবশ্যই মেনে চলতে হবে কিছু নিয়ম। আপনাকে খেয়াল রাখতে হবে আপনার খাদ্য তালিকায়।

তাহলে চলুন জেনে নেওয়া যাক কোন কোন খাদ্য আপনার চোখকে সর্বদা সুস্থ রাখতে সাহায্য করবে –

প্রথমেই আসছে বাদাম জাতীয় খাবার। যেমন ধরুন, কাঠ বাদাম কাজু বাদাম বা সূর্যমুখী বীজ এগুলোতে ভিটামিন এ থাকে তাই এগুলো খাওয়া চোখের জন্য ভালো।
এছাড়াও যে কোনো দানা শস্য, সাধারণত দানা শস্যে জিংক ভিটামিন ই নিয়াসিন থাকে তাই দানা জাতীয় খাবার চোখের জন্য ভীষণ উপকারী। এরপর সবুজ শাক-সবজির কথা তো মা জেঠীমা-য়েরা সর্বদাই বই থাকেন।সবুজ পাতাযুক্ত শাক যেমন পালং শাক এতে ভিটামিন এ ও সি থাকে তাই এগুলো খাওয়া চোখের জন্য উপকার।
রয়েছে ডিম, যাতে একদিকে প্রচুর পরিমাণে প্রোটিন থাকে অন্যদিকে ডিমে থাকা জিঙ্ক খাবার থেকে লুটিন শোষণ করে শরীরের ব্যবহারের উপযোগী করে, এ ছাড়াও ডিমের কুসুম ক্ষতিকারক নীল আলো থেকে চোখের সুরক্ষা দেয়।

সবজির মধ্যে পড়ছে ক্যাপসিকামও। ভিটামিন ই সমৃদ্ধ ক্যাপসিকাম চোখের রক্ত নালী গুলিকে ভাল রাখতে সাহায্য করে।এছাড়াও শুটি জাতীয় খাবার, মটরশুটি মটর ডাল মুসুর ডাল রাজমা এবং শোনা এগুলি নিরামিষ হলেও আমাদের চোখের পক্ষে অত্যন্ত ভাল কারণ প্রয়োজনীয় ভিটামিন এবং খনিজের দুর্দান্ত উত্স থাকে।ফলের মধ্যে রয়েছে কমলা রঙের যে কোনও ফল, যেমন-কমলা লেবু বা কমলার রঙের ফল যেমন গাজর মিষ্টি আলু আম এগুলি সবই কিন্তু বিটা ক্যারোটিন সমৃদ্ধ। তাই এগুলি চোখের জন্য ভীষণ উপকারী। এছাড়াও আছে সাইট্রাস ফল, ভিটামিন ই ভিটামিন সি সমৃদ্ধ খাবারও চোখের যত্ন নিতে সাহায্য করে তাই সাইট্রাস ফল যেমন লেবু কমলা লেবু মৌসুমি লেবু বাতাবি লেবু বেশি করে খাওয়া উচিত বলে মনে করেন আমেরিকান অফ মেট্রিক সোসাইটির চিকিত্সকরা। স্কোয়াশ, যা পেঁপের মতো দেখতে এই ফলটি সাধারণত ভিটামিন সি ওমেগা ফ্যাটি এসিড সমৃদ্ধ যা আপনার দৃষ্টি শক্তিকে সহজেই স্বচ্ছ করতে সাহায্য করে।

আপনার চোখকে ঠান্ডা রাখতে সাহায্য করে দুধ ও দুধজাত যেকোনো খাবার। দই দুধ এবং অন্যান্য দুগ্ধজাত খাবারে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন সি জিংক ক্যালসিয়াম ফসফরাস থাকে, তাই এগুলো চোখের জন্য ভীষণ ভালো।আর সর্বোপরি তো জল রয়েছেই। পর্যাপ্ত জল পান যেমন একাধারে আপনার শরীরকে সতেজ রাখবে তেমনি চোখের।

Show More

Related Articles

Leave a Reply

Back to top button
%d bloggers like this: