West Bengal

মত্ত অবস্থায় শ্লীলতাহানির অভিযোগ পুলিশ আধিকারিকের বিরুদ্ধে, গ্রেফতার আধিকারিক

রূপান্তরকর্মী ও তার দুই সঙ্গীর গাড়ি আটক করে অভব্য আচরণ, রাতেই দায়ের অভিযোগ

দেবশ্রী কয়াল : মানুষ বিপদের সম্মুখীন হলে ছুটে যায় পুলিশের সাহায্য নিতে। কিন্তু কী হবে যদি বিপদের কারন খোদ পুলিশ ? এমনি ঘটনা ঘটল খাস কলকাতায়। এক রূপান্তরকামী এবং তাঁর সঙ্গী দুই মহিলার গাড়ি আটকে রাস্তায় শ্লীলতাহানি করার অভিযোগ উঠল কলকাতা পুলিশের এক আধিকারিকের বিরুদ্ধে। অভিযোগ উঠেছে, ঘটনার সময় ওই পুলিশ আধিকারিক মত্ত অবস্থায় ছিলেন। এই ঘটনার পর সোমবার রাতেই বৌবাজার থানায় গিয়ে অভিযোগ দায়ের করেন নির্যাতিতারা। জানা যাচ্ছে তারপরেই গ্রেফতার করা হয়েছে ওই পুলিশ আধিকারিককে এবং সাসপেন্ডও করা হয়েছে তাঁকে।

এই ঘটনাটি ঘটে গতকাল সোমবার রাত সাড়ে ৮টা নাগাদ বৌবাজার থানা এলাকায় চিত্তরঞ্জন অ্যাভিনিউয়ের উপর একটি ক্যাফের সামনে। সেখানে পশ্চিমবঙ্গ রূপান্তরকামী উন্নয়ণ পর্ষদের এক সদস্যা ও আরও দুই মহিলা ওই ক্যাফেতে চা খেতে যান। সামনেই তাঁদের গাড়ি দাঁড়িয়ে ছিল। অভিযোগ ওঠে, ক্যাফে থেকে বেরিয়ে গাড়িতে ওঠার সময় এক ব্যক্তি এসে তাঁদের গাড়ি আটকান।এরপর ওই ব্যক্তি নিজেকে পুলিশকর্মী পরিচয় দেন। তখন নির্যাতিতারা ওই আধিকারিককে জিজ্ঞেস করেন কেন তাদের গাড়ি আটকানো হয়েছে তখন সেই ব্যক্তি অভব্য আচরণ শুরু করেন। এক নির্যাতিতা পুলিশকে জানিয়েছেন, ওই ব্যক্তি গাড়ির সামনে অভব্যতা করার পাশাপাশি গাড়ির দরজা খুলে দুই মহিলার হাত ধরে নামানোর চেষ্টা করেন এবং শ্লীলতাহানি করেন।

তখন নির্যাতিতারা গাড়ি থেকে ওই ব্যক্তির ছবিও তোলেন এবং ১০০ ডায়াল করে পুলিশে খবর দেন। অভিযোগকারিণীদের কথায়,”পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে ওই ব্যক্তিকে স্যর বলে সম্বোধন করায় আমরা বুঝতে পারি সত্যি ওই ব্যক্তি পুলিশকর্মী।’ এরপর তাঁরা অভিযোগ করেন, পুলিশকর্মী বলে মত্ত অভিযুক্তের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে গড়িমসি করছিল তখন পুলিশ। যদিও সেই রাতেই বৌবাজার থানায় গিয়ে নির্যাতিতারা লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।

Tags
Show More

Related Articles

Leave a Reply

Back to top button
Close
Close
%d bloggers like this: