Health

গলা ব্যাথার উপশমে ঘরোয়া টোটকা, সহজেই কাজ

ঠান্ডা র মরশুমে গলা ব্যাথা রুখতে থাকলো কিছু সহজ ঘরোয়া উপায়ে

পৃথা কাঞ্জিলাল : করোনা ভাইরাসে(Corona Virus)র অন্যতম উপসর্গ কাশি এবং গলা ব্যাথা। ভয় পেয়ে থাকছেন অনেকেই। এছাড়াও শীতকালে যাদের টনসিলের সমস্যা আছে তারা প্রায়ই গলাব্যথা তে ভুগে থাকেন। আবার গরমকালেও তীব্র গরমে ঘাম বসে গিয়ে ঠান্ডা লাগা এমনকি গলাব্যথা পর্যন্ত হতে পারে। তাই গলা ব্যথা হলে প্রথমে করোনা ভেবে ভয় পাবেন না। গলা ব্যথার জন্য প্রথমেই খুবই কাজে আসে নুন জলের গার্গল। গলা ব্যথা হলে নুন জলের ভাপ নিলে গলা ব্যথা দ্রুত সেরে যায়। কান মাথা ভালো করে জড়িয়ে গরম জলে নুন দিয়ে দিনে দুবার ভাব নিলে গলা ব্যথা সেরে যাবে। গলা ব্যথার ঔষধ হল লবঙ্গ। দুটো লবঙ্গ মুখে রেখে দিন কিছুক্ষণের জন্য। লবঙ্গ দুটো নরম হয়ে গেলে চিবিয়ে গিলে নিন খুব তাড়াতাড়ি গলা ব্যথা সেরে যাবে।

রসুনেই মধ্যেও আছে গলা ব্যাথা সারানোর মোক্ষম ওষুধ। রসুনের মধ্যে থাকা অ্যালিসিন গলা ব্যথার জন্য দায়ী ব্যাকটেরিয়া কে মারতে সাহায্য করে। রসুন কাঁচা খেতে পারেন বা রান্না করে খেতে পারেন। অনেকদিন আগে থেকেই মধু তার অ্যান্টিব্যাকটিরিয়াল এবং অ্যান্টি-ইনফ্ল্যামেটরি বৈশিষ্ট্যগুলির জন্য পরিচিত লাভ করে আসছে। মধু গলা ব্যথা সারাতেও সাহায্য করে। এক কাপ গরম জলে এক চামচ মধু মিশিয়ে দিনে দুই থেকে তিনবার পান করলে খুব তাড়াতাড়ি গলা ব্যাথার উপশম কমে যাবে।

পাতিলেবু আমাদের শরীরে টক্সিন দূর করতে সাহায্য করে। এক গ্লাস গরম জলে একটি পাতি লেবুর রস এবং এক চামচ মধু মিশিয়ে দিনে দু’বার খান তাহলে টনসিল এবং গলা ব্যথার মত সমস্যা দূর হয়ে যাবে। খেতে পারেন হলুদ যার মধ্যে আছে অ্যান্টি ইনফ্লামেটরি গুন যা গলা ব্যথা নিরাময়ে সাহায্য করে। এছাড়াও সকালে এক টুকরো কাঁচা হলুদ খেতে পারলে গলা ব্যথা ছাড়া শরীরের অনেক রোগ দূরীভূত হয়। এই ঘরোয়া টোটকা গুলি ব্যবহার করে দেখতে পারেন উপশম সহজেই।

Show More

Related Articles

Leave a Reply

Back to top button
%d bloggers like this: