Health

সর্দি গর্মির সমস্যা? রইলো সুস্থ থাকার হাতে গরম কয়েটি উপায়ে

সর্দি কাশির সমস্যা থেকে দূরে থাকতে ঘরোয়া উপায় তাই ভরসা রাখুন

পৃথা কাঞ্জিলাল : শীতের শুরুতে সর্দি গর্মি ভোগেন অনেকেই, বিশেষ করে এই অতিমারীর সময়ে নিজেকে সুস্থ রাখতে ব্যস্ত অনেকেই তবে তাতেও সর্দি কাশিতে (Cough And Colds)ভুগে থাকেন মানুষজন। সিজন চেঞ্জের সময় এই সমস্যা বেশি দেখা যায়। হাঁচি সর্দি কাশি এসবের জন্য শরীর একেবারে কাহিল হয়ে যায়। করোনা কালে সামান্য জ্বর হলেও ভয় পাচ্ছেন অনেকেই। ওষুধ খেয়ে সাময়িক স্বস্তি মিললেও তা কিন্তু পুরোপুরি সেরে ওঠে না তাই খাবারের তালিকায় ছোটখাটো বদল করলেই সর্দি কাশি ধরা ছোঁয়ার বাইরে থাকবে। তাই জেনে নেওয়া ভালো ঘরোয়া টোটকায় কীভাবে সর্দি কাশি দূরে রাখবেন-

১. রোজ খাবারের তালিকায় ভিটামিন সি সমৃদ্ধ খাবার রাখুন। পাতিলেবু কাঁচালঙ্কা মৌসুমিলেবু বা কমলালেবু এগুলি নিয়মিত খেলে সর্দি কাশি কাছে ঘেঁষতে পারে না। তালিকায় রাখতে পারেন ছানা ও।

২. নিয়মিত মধু খেতে পারেন কারণ মধুতে থাকা অ্যান্টি অক্সিডেন্ট উপাদান শরীরের জন্য ভীষণ ভাবে উপকারী বিশেষ করে কাশির সমস্যা থেকে মুক্তি পাওয়া যায়। তাই প্রতিদিন সকালে এক চামচ করে মধু খাওয়া অত্যন্ত জরুরি।

  1. রোদ থেকে সরাসরি এসিতে ঢোকার অভ্যাস থাকলে তা বর্জন করতে হবে। ঠান্ডা জায়গায় ঘাম শুকিয়ে নিন তার পরে এসিতে ঢুকুন এতে সর্দি কাশির সমস্যা থেকে রেহাই পাওয়া যায়। শীতকালে কিছুটা বসে ঠান্ডা হয়ে নিয়ে তারপর স্নান করা উচিত, তা না হলে সর্দি কাশি র সমস্যা হতেপারে।
  2. যাঁদের সাইনাসের ধাত রয়েছে তাঁরা একে বারেই এয়ার কুলার ব্যবহার করবেন না। এয়ার কুলারের ঠান্ডা আর্দ্র হাওয়া সর্দি কাশির জন্য দায়ী।
  3. রোদে বের হওয়ার আগে অবশ্যই ছাতা বা টুপি ব্যবহার করা বাধ্যতামূলক।
  4. রোদ থেকে এসে ফ্রিজের জল একেবারেই না।
  5. রাস্তা থেকে এসে আগে হাত মুখ ভাল করে দেবেন তার পর খাবার খাবেন। জীবাণুর সংক্রমণে সর্দি কাশি বেশি হয়।
  6. বৃষ্টিতে ভিজে গেলে বাড়ি ফিরে স্নান করে চুল শুকিয়ে নিন কখনোই বৃষ্টির জল গায়ে বসতে দেবেন না।
  7. ভেজা চুল বেঁধে বাইরে যাওয়া বন্ধ করা দরকার, সেরকম হলে ড্রায়ার বা তোয়ালে দিয়ে ভালো করে চুল মুছে শুকিয়ে নিন।
  8. আইসক্রিম খাওয়ার পর ঘরোয়া মাত্রায় এক গ্লাস জল খেয়ে নিন এতে সর্দি বা কাশির আশঙ্কা কম থাকে।

এই কয়েটি সহজ নিয়ম মাথায় রাখলে করোনা কালেও সুস্থ থাকতে পারবেন আপনি। এবং সারা বছরের সর্দি গরমে থেকেও পাওয়া যাবে রেহাই।

Show More

Related Articles

Leave a Reply

Back to top button
%d bloggers like this: