West Bengal

পূজার মরশুমেও খুলবে না স্টেশন গুলির ফুড প্লাজা, রয়েছে বহু আশঙ্কা

রয়েছে সকল অনুমতি, কিন্তু সকল স্টেশনগুলি নিয়েছে বড় সিদ্ধান্ত

দেবশ্রী কয়াল : ক্রমশ বেড়ে যাচ্ছে মারণ করোনার সংক্রমণ। বাড়ছে মানুষের আশঙ্কাও। এখনও বাড়ির বাইরে খাবার খেতে গেলে সংকোচ বোধ করছেন অনেকেই। আর কদিন পরেই পূজা। আর এই পূজার মরশুমে স্টেশনগুলিতে ফুড প্লাজা ও জন আহার খোলার অনুমতি দিয়েছে রেল কর্তৃপক্ষ। বর্তমান করোনা পরিস্থিতির জেরে ,রান্না করা খাবার বিক্রি বন্ধ ছিল। তবে এই প্রথম রান্না করা খাবার বিক্রির অনুমতি দিল রেল। কিন্তু এই বিক্রির অনুমতি সত্বেও হাওড়া, শিয়ালদহের মতো গুরুত্বপূর্ণ স্টেশনে ফুড প্লাজা বা আইআরসিটিসি পরিচালিত জন আহার এখনও খোলেনি। আর এগুলি খোলার কোনও পরিকল্পনা এখনও পর্যন্ত নেই বলে জানাচ্ছে ফুড প্লাজা কতৃপক্ষ।

হাওড়ার স্টেশনের তরফে শঙ্কর নাগ জানান, গত ৩০শে সেপ্টেম্বর রাতে জন আহার, ফুড প্লাজা খোলার নির্দেশ আসে। রেলের তরফে জানানো হয়, কুড়ি শতাংশ লাইসেন্স ফি রেলকে দিতে হবে। এবং এক্ষেত্রে তাদের দৈনিক ত্রিশ হাজার টাকা রেলকে দিতে হবে। কিন্তু বর্তমান পরিস্থিতিতে দাঁড়িয়ে আশঙ্কা করা হচ্ছে হয়ত এই খরচ উঠবে না। তাই ফুড প্লাজা খুলবে না কর্তৃপক্ষ।

এর পাশাপাশি তিনি আরও বলেন, ‘ট্রেন হাওড়া আসার পর, যাত্রীদের লাইন করে বের করে দেওয়া হচ্ছে। আর যাত্রার সময়েও যাত্রীদের সরাসরি ট্রেনে পাঠিয়ে দেওয়া হচ্ছে। ফলে আলাদা করে তাঁরা খাবার খাওয়ার জন্যে ফুড প্লাজায় আসতে পারছেন না।’ আর তাই সবকথা মাথায় রেখে এই পরিস্থিতিতে সব স্টেশনে একইরকম সিদ্ধান্ত নেওয়ার পাশাপাশি কর্তৃপক্ষ লিখিতভাবে রেলকে জানিয়েছে, দশ শতাংশ ফি মঞ্জুর করলেই তারা রেস্টুরেন্টগুলি খুলতে পারে। নাহলে কিন্তু বন্ধ থাকবে স্টেশন গুলির ফুড প্লাজা।

Show More

Related Articles

Leave a Reply

Back to top button
%d bloggers like this: