Business

সংঘাতের আবহেই ফের বড় বাণিজ্যিক চুক্তি ! ৩ দশক পর ভারত থেকে বড় মাত্রায় চাল

চাল আমদানি নিয়ে নয়া চাল চীনের

চৈতালি বর্মন : বিশ্বে চাল রফতানিতে প্রথমেই রয়েছে ভারত (India) আর আমদানির ক্ষেত্রে প্রথমে ছিল চিন (China)। বছরে প্রায় চার মিলিয়ন টন চাল আমদানি করে বেজিং(Beijing), কিন্তু এ যাবত্‍ গুণগত মানের কারণ দেখিয়েই ভারতের থেকে চাল কেনা একপ্রকার এড়িয়েই যেত চিন। তবে এই পরিস্থিতিতে রসদের জোগানে টান এবং ভারতের অপেক্ষাকৃত কম মূল্যই চিনের এই সিদ্ধান্তের কারণ বলেই মনে করছে সংশ্লিষ্ট শিল্প মহল। আবার তিন দশক পর এই প্রথম ভারত থেকে চাল আমদানি শুরু করল চিন। দুই দেশের সাম্প্রতিক সম্পর্কের বিবেচনা করলে চিনের এই পদক্ষেপ যথেষ্ট তাত্‍পর্যপূর্ণ।

চাল রফতানি সংগঠনের সভাপতি বি ভি কৃষ্ণ রাও (BV Krishna Rao) জানান, “এত বছর পর এই প্রথম চিন ভারত থেকে চাল আমদানি করল। আমরা আশা করছি, ভারতের চালের গুণমান দেখে আগামী বছরে এবারের তুলনায় বেশি চাল কিনতে পারে চিন।” এবার ডিসেম্বর-ফেব্রুয়ারি মাসের জন্য ১,০০,০০০ টন ভাঙা চাল আমদানির বরাত পেয়েছে ভারত, প্রতি টনে ৩০০ ডলার করে মূল্য ধার্য করা হয়েছে। প্রসঙ্গত, এতদিন তাইল্যান্ড, ভিয়েতনাম, মায়ানমার ও পাকিস্তানের থেকেই চাল আমদানি করত চিন।

জুনের লাদাখ সেনা সংঘর্ষের পর থেকেই ভারত-চিন দ্বিপাক্ষিক সম্পর্কের ক্রমেই আরও অবনতি হয়েছে। এমনকী ভারতের তরফে চিনা পণ্য বয়কটেরও ডাক দেওয়া হয়েছে। অন্যদিকে একাধিক বাণিজ্য চুক্তি বাতিলের পক্ষে হাঁটেতে বেজিংও। কিন্তু চিনের অপ্রচারের পড়েও বিশ্ববাজারে ভারতীয় চালের দর কখনও বিশেষ পড়তে দেখা যায়নি। উল্টো আরও বেশি অর্ডার এসেছে ভারতের কাছে।এবার ভারতের উত্‍কৃষ্ট চাল কথা শুনে অবশেষে ফের ভারতের কাছ থেকেই চাল কিনতে চলেছে চিন।আগামী ডিসেম্বর থেকে ফেব্রুয়ারির মধ্যে ৩০০ ডলার প্রতি টন দরে ভারত থেকে প্রায় ১ লক্ষ টন চাল কিনতে চলেছে চিন।

Show More

Related Articles

Leave a Reply

Back to top button
%d bloggers like this: