Big Story

ভারতীয় ইতিহাসের রদ বদল প্রায় ৫০ বছর পর, জওয়ান জ্যোতির শিখা স্থানান্তর

১৯৭২ সালের ২৭ জানুয়ারি ইন্দিরা এই স্মৃতিসৌধের উদ্বোধন করেছিলেন

তিয়াসা মিত্র : প্রায় পাঁচ দশক পরে নরেন্দ্র মোদির সিন্ধান্তে স্থানান্তর হতে চলেছে নয়াদিল্লির ইন্ডিয়া গেটের অমর জওয়ান জ্যোতির অনির্বাণ শিখা। তাই কিছু সময়ের জন্য নেভানো হবে সেই জ্যোতি। প্রায় ৫০ বছর আগে বাংলাদেশ মুক্তি যুদ্ধের সময়ে যে ভারতীয় সৈন্যরা নিজেদের সমর্পিত করেছিলেন, তাদের শ্রদ্ধা জানাতে সেই সময়ের প্রধান মন্ত্রী ইন্দিরা গান্ধী এই “অমর জওয়ান জ্যোতি ” যার সামনে অনবরত জ্বলে গেছে অনির্বাণ শিখা। ১৯৭২ সালের ২৭ জানুয়ারি ইন্দিরা এই স্মৃতিসৌধের উদ্বোধন করেছিলেন । পাথরের স্তম্ভে উল্টো করে রাখা ৭.৬২ স্বয়ংক্রিয় রাইফেল এবং তার উপর একটি সেনা শিরস্ত্রাণের স্মারক রয়েছে এখানে।

আজ ৫০ বছর পরে ভারতের ইতিহাসের স্থানান্তর ঘটাচ্ছেন প্রধান মন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। জানা যাচ্ছে সেই ” অমর জওয়ান জ্যোতি ” নিয়ে যাওয়া হবে ইন্ডিয়ান গেট থেকে প্রায় আধ কিলোমিটার দূরত্বের ‘ন্যাশনাল ওয়ার মেমোরিয়াল’-এ। ২০১৯ সালে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ইন্ডিয়া গেট চত্বরের ‘ন্যাশনাল ওয়ার মেমোরিয়াল’-এর উদ্বোধন করেছিলেন। সেই সময়ে-এর অভিযোগ ছিল, পুলওয়ামা সন্ত্রাসের আবহে দেশপ্রেমের জিগির তুলে লোকসভা ভোটে জেতার উদ্দেশ্যেই সরকারের এই পদক্ষেপ।ঘটনাচক্রে, এ বারও উত্তরপ্রদেশ-সহ পাঁচ রাজ্যের বিধানসভা ভোটের আগেই শহিদ জওয়ানদের স্মৃতিতে প্রজ্জ্বলিত শিখা স্থানান্তর করা হচ্ছে।

স্বাধীনতার পর থেকে যে সেনা-জওয়ানেরা দেশ রক্ষায় জীবন দিয়েছেন তাঁদের স্মৃতিতেই ৪০ একর জমিতে তৈরি হয়েছে এই যুদ্ধ-স্মারক। চারটি সমকেন্দ্রিক বৃত্ত বা চক্রের আকারে বানানো হয়েছে এর দেওয়াল। আকাশ থেকে যা অনেকটা চক্রব্যূহের মতো দেখাবে। চক্র চারটির নাম হল, অমর চক্র, বীরতা চক্র, ত্যাগ চক্র এবং রক্ষক চক্র। চক্রের দেওয়ালগুলিতে লেখা হয়েছে ২৫ হাজার ৯৪২ জন নিহত সেনার নাম।

Show More

OpinionTimes

Bangla news online portal.

Related Articles

Leave a Reply

Back to top button
%d bloggers like this: