Nation

পাওনাদাররা চাপ বাড়াচ্ছিলেন, জুয়ায় হেরে আত্মহত্যা পরিযায়ী শ্রমিকের

জুয়ায় হেরে বিশাল দেনা, পরিনাম আত্মহত্যা

পল্লবী কুন্ডু : আইপিএল নিয়ে একাধিক বার বেট লড়ার কথা উঠে এসেছে খবরের শিরোনামে। এই জুয়ার ভয়ানক পরিনামও নজরে এসেছে বারংবার। শুধু আইপিএল-ই(IPL) নয় যে কোনো টি২০ ক্রিকেটের বিরুদ্ধেই এই বেট লড়ার অভিযোগ উঠেছে পরোক্ষভাবে বেশ কয়েকবার। প্রত্যেকবছর আইপিএল চলাকালীন জুয়ায় নিষেধাজ্ঞা থাকা সত্ত্বেও তা চলে বেশ রমরমিয়ে। এবারে সামনে আসলো এই জুয়ার এক ভয়ানক পরিনাম। জুয়ায় হেরে বিশাল অংকের দেনা হয়ে গিয়েছিল। পাওনাদাররা চাপ বাড়াচ্ছিলেন। তাই আত্মহত্যা করার পথই বেছে নিলেন এক পরিযায়ী শ্রমিক।

মাস খানেক আগে আইপিএল শুরু হওয়ার পরে ম্যাচ ধরে ধরে বেটিং করতে শুরু করেন তিনি। চেনা পরিচিতদের থেকে বেটিংয়ের জন্য টাকা ধার নিচ্ছিলেন। তবে অধিকাংশ সময়ই হারছিলেন তিনি। তাই উপার্জন হচ্ছিলই না। উপরন্তু দেনার চাপ সমস্যা তৈরি করে তাঁর ওপর। বেশিরভাগ ম্যাচের ফলাফলই তাঁর বেটিংয়ের অনুকূলে যাচ্ছিল না। এদিকে পাওনাদাররাও চাপ তৈরি করেছিলেন ওই ব্যক্তির উপর। তারপরেই বেছে নেন আত্মহত্যার পথ।

অন্ধ্রপ্রদেশের পুঞ্জাগুটটা এলাকায় এমন ঘটনা গোটা দেশেই বেশ সাড়া ফেলে দিয়েছে। ঝাড়খণ্ডের বাসিন্দা ১৯ বছরের এই সনু কুমার যাদব নিজের ভাড়া করা ঘরের বাথরুমে গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করেন। সনু এলাকায় ডাব বিক্রি করতেন। মঙ্গলবার সকালে বাথরুমে গিয়ে আর বেরোচ্ছিলেন না। রুমমেটরা বারেবারে ডাকাডাকি করলেও ভিতর থেকে কোনো আওয়াজ আসছিল না। শেষ পর্যন্ত দরজা ভাঙার সিদ্ধান্ত নেয় সনুর রুমের বাকিরা। দরজা ভাঙতেই ঝুলন্ত দেহ দেখে আঁতকে ওঠেন সকলে। তারপরে পুলিশে খবর দেওয়া হয়। পুলিশ এসে মৃতদেহ উদ্ধার করে। প্রশাসনিক নিষেধাজ্ঞা মানলে হয়তো খেলার হারা-জেতার মাঝে এরূপ ভয়ানক পরিনাম দেখতে হতোনা।

Show More

Related Articles

Leave a Reply

Back to top button
%d bloggers like this: