Big Story

মুকুলবাবু কি কিছুটা ‘ঢাকা’ পড়ে যাচ্ছেন? প্রশ্ন ঘুরছে বিজেপির অন্দরমহলেই

তবে কি হালে পানি টানার জন্যই এই পিছিয়ে আসা?

নিজস্ব সংবাদদাতা: বিধানসভা ভোটের আগেই শাসক দল থেকে যেভাবে হেভিওয়েট নেতারা বিজেপিতে দলে দলে যোগ দিতে শুরু করেছেন তাতে যে কার্যত পদ্ম শিবিরেই ক্ষোভ বাড়ছে তা সহজেই অনুমান করা যাচ্ছে। দল ছেড়ে বেরিয়ে গেরুয়া শিবিরে যোগ দেয়ার পথপ্রদর্শক বলতে গেলে মুকুল রায়-ই। কিন্তু অমিত শাহ এর বক্তৃতার সময় তার নামের কোনো উল্লেখই করলেন না কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। সেই নিয়ে কি মুকুল রায়ের মনে ক্ষোভের উদ্রেক হয়েছে? তিনি কি শুভেন্দু-রাজীবদের ভিড়ে ঢাকা পরে যাচ্ছেন নাকি স্বৈচ্ছাতেই এই পিছিয়ে যাওয়া!

পাশাপাশি, আরও যে বিষয়টি গেরুয়া শিবিরে কান পাতলে শোনা যাচ্ছে যে এই দলবদলের খেলাটা প্রথম মুকুল রায় শুরু করলেও গুরুত্ব পাওয়ার দিক থেকে শুভেন্দু কিছুটা হলেও এগিয়ে আছেন। সাংগঠনিক দক্ষতা ও রাজনৈতিক অভিজ্ঞতায় যেহেতু শুভেন্দু তুলনায় এগিয়ে তাই মুকুল রায়ের এই পিছিয়ে থাকা ক্ষোভের উদ্রেক করেছে মুকুল সমর্থকদের মনে। এছাড়াও যোগ দেওয়ার মুহূর্তেই শুভেন্দু-রাজীবকে যেভাবে জেড ক্যাটাগরির সিকিউরিটি দেয়া হয়েছে তা দেওয়া হয়নি মুকুল রায় কে। অন্য দিকে, সারদা-নারদা কাণ্ডের পর মুকুলের ভাবমূর্তি কালিমালিপ্ত হলেও এদিক থেকে রাজীবের ব্যক্তিগত ভাবমূর্তি এখনো পরিষ্কার। শোনা যাচ্ছে শাহও গত কয়েক দিন বারংবার রাজীবের সঙ্গে সরাসরি কথা বলেছেন। শাহ যে ডুমুরজলার সভায় ভার্চুয়াল বক্তৃতা করবেন, সেই তথ্যও প্রথম শোনা যায় রাজীবের মুখেই।

রাজনৈতিক মহলে জোর তরজা, তবে কি শুভেন্দু- রাজীবের জন্যই গুরুত্ব কমছে মুকুলের? ইতিমধ্যে জানা যাচ্ছে কেন্দ্র থেকে জরুরি তলব করা হয়েছে শুভেন্দু-মুকুল কে। জানা যাচ্ছে নির্বাচনী কৌশল নিয়ে আলোচনা করবেন তারা। গুঞ্জন শোনা যাচ্ছে রাজনৈতিক জায়গা পাকাপোক্ত করার জন্যই হয়তো মুকুলের এই চুপ থাকা। তবে এখনো ভোটের মুখে গেরুয়া শিবির থেকে এব্যাপারে কোনো খবর পাওয়া যায়নি। পদ্ম শিবিরে মুকুলের ভবিষ্যৎ কি একথা এখন সময়ই বলবে।

Show More

Related Articles

Leave a Reply

Back to top button
%d bloggers like this: