Weather

আবারও পড়তে পারে ঠান্ডা, আবহাওয়া দফতর দিচ্ছে খানিক আশা

নেই শীতের আমেজ, এসে গেছে যেন জুনের দাবদাহ

দেবশ্রী কয়াল : পৌষেই উধাও হয়েছে শীতের (Winter) মেজাজ। দিনের বেলায় গরমে হাঁসফাঁস করছেন মানুষ। ভাবাই যাচ্ছে না এই সময়ে নাকি শীতের দেখা নেই। তবে মনে হচ্ছে ভালো দিন আসতে চলেছে। তবে অপেক্ষার অবসান ঘটিয়ে আরও একবার পারদের মান নামতে চলেছে। জানা যাচ্ছে আজ মঙ্গলবারও কনকনে ঠান্ডায় কাঁপবে উত্তর ভারত, চলবে শৈত্য প্রবাহ। মৌসম ভবন থেকে জানানো হয়েছে, আগামী ৩ দিন দেশের বিভিন্ন অংশে জাঁকিয়ে শীত পড়বে । পশ্চিমী ঝঞ্ঝার জেরে উত্তর ভারতের বেশির ভাগ অংশে আগামী ৩ দিন ন্যূনতম তাপমাত্রা ২ থেকে ৪ ডিগ্রি পর্যন্ত পড়ে যেতে পারে।

এছাড়াও জানা যাচ্ছে, আগামী ৩ দিন পর্যন্ত দিল্লি, উত্তর পশ্চিমী উত্তর প্রদেশ, পঞ্জাব, হরিয়ানা, রাজস্থান ও চন্ডীগড়ে কনকনে ঠান্ডা পড়ার সম্ভাবনা রয়েছে। ইতিমধ্যেই শৈত্যপ্রবাহের জেরে রাজস্থানের বেশ কিছু এলাকায় হলুদ সতর্কতা জারি করেছে আইএমডি। অন্যদিকে পঞ্জাব ও হরিয়ানা কনকনে ঠান্ডায় কাঁপছে। হিমাচল প্রদেশের বেশ কিছু এলাকায় তাপমাত্রা ০ ডিগ্রির নীচে চলে গিয়েছে।

অস্বস্তিতে ভুগছেন বঙ্গের মানুষও। তবে সেখানেও রয়েছেন ক্ষীণ আশা। আবহাওয়া দফতর জানিয়েছে, কনকনে ঠাণ্ডা না পড়লেও পৌষ সংক্রান্তির আগে কিছুটা হলেও বঙ্গে ফিরবে শীতল আবহাওয়া। সাধারণত এই সময় অন্য বছর গুলিতে গা থেকে ঠান্ডার কাপড় সরানো যায় না, কিন্তু এই বছর মানুষ আর পড়তে পারছেন না সোয়েটার, বা চাদর। বাংলা থেকে যেন পুরোপুরিভাবে উধাও হয়েছে ঠান্ডা। উত্তরবঙ্গে সামান্য ঠান্ডা থাকলেও, দক্ষিণবঙ্গ থেকে প্রায় উধাও হয়েছে উত্তুরে হাওয়া। যেভাবে বেলা বাড়ার সাথে পারদের মান বাড়ছে তাতে মনে হচ্ছে যেন জানুয়ারি মাসে জুন মাসের গরম পড়েছে। তাই খানিক শীতল আবহাওয়া হলে স্বস্তি পাবেন দক্ষিণবঙ্গের মানুষ।

Show More

Related Articles

Leave a Reply

Back to top button
%d bloggers like this: