Nation

নতুন মুকুটের অধিকারী তিলোত্তমা শহর, সময় আনন্দিত হওয়ার

বিশ্ব বিজ্ঞান শহরের তালিকার প্রথম ১০০ তে কলকাতা, পিছনে ফেলল অনেককেই

দেবশ্রী কয়াল : সময় এসেছে আরও একবার গর্ব করার। নতুন এক মুকুটের অধিকারী হয়েছে তিলোত্তমা শহর। বিশ্বের প্রথম ১০০টি বিজ্ঞানের শহরের মধ্যে প্রবেশ কলকাতার। নেচার ইনডেক্স ব়্যাংকিংয়ের নতুন সমীক্ষা বলছে, বিজ্ঞান শহরের তালিকায় ১২১ থেকে কলকাতা অনেককে পিছনে ফেলে এখন ঠাঁই করে নিয়েছে ৯৯ নম্বরে। কলকাতা পিছনে ফেলেছে ব্যাঙ্গালোরকে। এই তালিকার শীর্ষে রয়েছে বেজিং, বোস্টন, নিউ ইয়র্কের মতো শহর।

প্রত্যেক বৎসর বিজ্ঞানচর্চা এবং তার প্রয়োগে কোন শহর কত এগিয়ে, তা নিয়ে একটি সমীক্ষা চালায় নেচার ইনডেক্স। আর করোনা কালেও তার কোনো ব্যতিক্রম হয়নি। ২০২০ সালেও একাধিক রিপোর্টের উপর ভিত্তি করে চলে তাদের সমীক্ষা। নেওয়া হয় অনেক বিশেষজ্ঞদের মতামতও। আর তার উপর ভিত্তি করেই উঠে আসে সমীক্ষার তথ্য। এ বছর অনেককে পিছনে ফেলে বিজ্ঞান শহরের প্রথম ১০০র তালিকায় ঢুকে পড়েছে সবার প্রিয় কলকাতা শহর।

গত বছর সারা বিশ্বে কলকতার স্থান ছিল ১২১, আর এ বছর সোজা ৯৯। এই খবরে খুশির জোয়ার মহানগরবাসীর হৃদয়ে। অনেকের মতে, নিউ নর্মালে কলকাতাবাসীর জীবন আগের থেকে অনেক পাল্টিয়েছে। বাড়ির বাইরে না বের হতে পারায় ঘরে বসেই ইন্টারনেটের মাধ্যমে করতে হয়েছে সকল কাজ। কেবল এই যুগের মানুষরাই নন, বিশ্বের সঙ্গে যোগাযোগ স্থাপনে আগ্রহী হয়েছেন প্রবীণরাও। বন্ধুত্ব হয়েছে প্রযুক্তির সঙ্গে। বিজ্ঞানচর্চা এবং প্রয়োগের তাদের পরিসর আগের তুলনায় অনেকটাই বেড়েছে। আর তাই বিশ্বের বিজ্ঞান-শহরের তালিকায় শহর কলকাতা রয়েছে প্রথম ১০০ এর মধ্যে।

Show More

Related Articles

Leave a Reply

Back to top button
%d bloggers like this: